দরিদ্র পরিবারের সন্তান মেধাবী নাছিম মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পেয়েছেঘোড়াঘাট ( দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ অভাব-অনাটন ছিল নিত্য দিনের সঙ্গী, অভাবের সাথে যুদ্ধ করে জয়ী হয়েছে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের দরিদ্র পরিবারের সন্তান মোঃ নাছিম মিয়া।

সে ২০১৮ সালের ভর্তি পরিক্ষায় বুয়েট, ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয় ও কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে চান্স পেয়েছে। উপজেলার পৌর সভার কাদিম নগর গ্রামের মোঃ বাবলু মিয়া ( মাংস বিক্রেতা ) ও মোছাঃ জোহরা বেগমের ২য় ছেলে। অভাব-অনাটনের মধ্যে লেখা পড়া চালিয়ে যাচ্ছে। কখনো খেয়ে, না খেয়ে স্কুলে যেত নাছিম।

তার স্বপন ছিল বড় হয়ে দেশ ও দশের সেবা করবে। অভাবের সংসারে লেখা পড়ার খরচ চালাতে না পেরে অন্যের বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের কে প্রাইভেট পড়াত। প্রাইভেটের টাকা দিয়ে নিজের বই,খাতা,কলম ক্রয় করত। বড় ভাই মোঃ জহুরুল ইসলাম বাপ্পী ছিল খুবই মেধাবি ছাত্র।

ছোট ভাইকে মানুষের মত মানুষ করার জন্য নিজের লেখা পড়া বাদ দিয়ে ঢাকায় সামান্য বেতনে প্রাইভেট কোম্পানীতে চাকুরি করত। ওই বেতন থেকে কিছু টাকা নিজের কাছে ও গ্রামে মায়ের কাছে পাঠাত। আর বাকী টাকা ছোট ভাই নাছিমের লেখা পড়ার জন্য পাঠাত । তাই নাছিমের একমাত্র ভরসা বড় ভাই বাপ্পী।

ঘোড়াঘাট উপজেলার নুরজাহানপুর (অবঃ) সামরিক উচ্চ বিদ্যালয় এস,এস,সি,ঢাকা নটরডেম কলেজ থেকে এইচ, এস,সি গোল্ডেন এ (প্লাস) পায় এ মেধাবি ছাত্র নাছিম। নাছিম জানায়,স্কুল ও কলেজের শিক্ষকরা লেখা পড়ার জন্য সহযোগিতা করছেন। নাছিম ভবিষ্যতে ইঞ্জিনিয়ার হতে চায়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য