এসিড হামলায় আহত ইউক্রেনীয় আন্দোলনকারী হানজুকের মৃত্যুএসিড হামলায় আহত হওয়ার তিন মাস পর মারা গেলেন ইউক্রেইনের বিশিষ্ট দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলনকারী কাতারিনা হানজুক।

ইউক্রেইনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খেরসনে ৩১ জুলাই হানজুকের ওপর এসিড হামলা হয়েছিল। এতে তার শরীরের ৪০ শতাংশ অংশ পুড়ে যায় এবং একটি চোখ মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

খেরসন সিটি কাউন্সিলের সদস্য হানজুককে রাজধানী কিয়েভের একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। গত তিন মাসে ১১ বার অস্ত্রোপচারের করা সত্বেও রোববার তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

তার মৃত্যুর সুর্নিদিষ্ট কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে ইউক্রেইনের স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে মৃত্যুর কারণ হিসেবে একটি ‘ব্লাড ক্লটের’ কথা বলা হয়েছে।

হানজুকের মৃত্যুর পর ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরোশেনকো তার হত্যাকারীদের শাস্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। হানজুকের ওপর হামলার সঙ্গে জড়িত পাঁচ সন্দেহভাজন ইতোমধ্যেই হেফাজতে রয়েছেন।

রাশিয়াসমর্থিত বিচ্ছিন্নতাবাদ বিরোধী এই আন্দোলনকারী সেপ্টেম্বরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করে দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়া ব্যাপক দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে ইউক্রেইনীয়দের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন।

তার মৃত্যুর পর ইউক্রেইনজুড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া আসতে থাকে। অনেকেই তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য