রংপুর কারাগারে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনঢাকা থেকে রংপুর কেন্দ্রীয় কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে। গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে চারটার সময় পুলিশী কড়া প্রহরায় তাকে রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়।

আজ রোববার সকালে রংপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রের আদালতে তাকে স্বশরীরে উপস্থিত করানো হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কারাগারের জেলার মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন।

তিনি জানান, শনিবার সকাল ৯টায় ঢাকা থেকে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে রংপুরের উদ্দেশ্যে নেয়া হয়। বিকেল ৪টা ৩০ মিনিটের দিকে পুলিশী প্রহরায় রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে তাকে নেয়া হয়।

দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে একাত্তর টিভির একটি অনুষ্ঠানে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করায় মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে ২২ অক্টোবর রংপুরে মামলা দায়ের করে নারী অধিকারকর্মী মিলিমায়া বেগম। ওই মামলাতে রোববার তাকে আদালতে উঠানো হবে।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তির ঘটনায় রংপুরের ওই মামলাতে ২২ অক্টোবর সন্ধ্যায় সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন গ্রেফতার হয়। পরে তাকে আদালতে নেয়া নিয়ে জামিন আবেদন জানালে তা নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ নেয়া বিচারক।

গত ১৬ অক্টোবর মধ্যরাতে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল একাত্তর টিভির টক-শোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে উদ্দেশ করে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের এক মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় ওঠে। এ ঘটনায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫৫ সম্পাদক ও বেশ কয়েকজন সিনিয়র সাংবাদিক বিবৃতি দেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য