ষ্টাফ রিপোর্টারঃ দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ঠিকাদারী চিনা প্রতিষ্ঠান সিএসসির অধিনের কর্মরত বাঙ্গালি শ্রমিকদের আন্দোলনের দাবী পুরন হতে চলেছে। এতে খনি কতৃপক্ষের সাথে শ্রমিকদের ঐক্য বৃদ্ধি পেয়ে খনির উৎপাদন বৃদ্ধি পাওয়ার আশা প্রকাশ করছেন খনির কর্মকর্তাগণ ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দরা।

এদিকে খনির শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দরা বলছেন খনি কতৃপক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে যখন শ্রমিক নেতৃবৃন্দরা তাদের দির্ঘদিনের দাবী পুরন করার কাজে ব্যস্থ ঠিক সেই সময় একটি মহল খনিকে অসাস্ত করার ষড়যন্ত্র করছে, বলে শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দরা একটি মহলের ্িরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন।

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির খনি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি রবিউল ইসলাম বলেন খনি শ্রমিক ইউনিয়নের দির্ঘ দিনের দাবী শ্রমিকদের রেশনিং ব্যবস্থা, ফেইজ বোনাস, প্রফিট বোনাস, নৈবত্তিক ছুটি, সাপ্তাহিক ছুটি, সরকারী ছুটি ও ঈদ উৎসব ছুটি বাস্তবায়নের জন্য, গত অক্টোবর মাসের ২০ তারিখে, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির নিয়ন্ত্রনকারী প্রতিষ্ঠান পেট্রোবাংলা চেয়ারম্যানএর সাথে তার কার্য্যলয়ে একটি দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা বৈঠকে শ্রমিকদের রেশনিঙ ভাতা মাসিক ১৫০০ টাকা, ৫ হাজার টাকা ফেইজ বোনাস, ২০ হাজার টাকা প্রফিট বোনাস বছরে ১০টি নৈবত্তিক ছুটি, ৫২টি সাপ্তাহিক ছুটি, ১০টি সরকারী ছুটি ও ৬টি ঈদ উৎসব ছুটি দেয়ার অঙ্গিকার করে পেট্রোবাংলা চেয়ারম্যান। যা চলিেত নভেম্বর মাস থেকে বাস্তবায়ন হয়ে যাবে। খনি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আরো বলেন পেট্রোবাংলা চেয়ারম্যানের সাথে শ্রমিকদের দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ খনির পদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্তিত ছিলেন।

এই শ্রমিক নেতা আরো বলেন শ্রমিক নেতৃবৃন্দরা যখন শ্রমিকদের দাবী বাস্তবায়নের জন্য কাজ করছে, ঠিক সেই সময গত অক্টোবর মাসের ২৮ তারিখে একটি ষড়যন্ত্রকারী মহল শ্রমিকদের ভূল বুঝিয়ে খনির ভিতর মিছিল মিটিং করার চেষ্ঠা করেছে, এতেকরে খনি এলাকাটিকে অসাস্ত করার অপচেষ্টা করেছে, সেই কর্মসুচির সাথে বড়পুকুরিয়া শ্রমিক ইউনিয়নের কোন সম্পর্ক নাই।

এদিকে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ফজলুর রহমান বলেন খনি শ্রমিকদের দির্ঘ দিনের দাবী একেএকে পুরন করা হচ্ছে, এতেকরে শ্রমিকদের সাথে খনি কতৃপক্ষের বন্ধন আরো বৃদ্ধিপাবে ও খনিতে কয়লা উত্তোলনও বৃদ্ধিপাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য