আজিজুল ইসলাম বারী,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটে ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত ও মারধর করায় দুই শিক্ষককে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া ওই বিদ্যালয়ের পরিচালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (৩১ অক্টোবর) সকালে দুই শিক্ষককে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে, রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জয়শ্রী রানী এ আদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ফতেখা গ্রামের লিচু মিয়ার ছেলে আকাশ বাবু (১৯) ও একই উপজেলার বলরাম গ্রামের নুরুল হকের ছেলে ফারুক মিয়া (২৪)। তারা দুই জনই লালমনিরহাট শহরের মেডিকেল মোড় এলাকার আপনপাড়া শিবরাম স্কুলের সহকারী শিক্ষক। এছাড়া এ ঘটনায় বিদ্যালয়ের পরিচালক রাশেদুল ইসলামকে নিয়মিত মামলায় গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ।

ইউএনও’র কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, লালমনিরহাট শহরের আপনপাড়া শিবরাম স্কুলের দুই শিক্ষক একই বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীকে প্রায় উত্ত্যক্ত করতেন। বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার বৈঠক হলেও তারা নিজেদের সংশোধন করেননি।

সম্প্রতি ওই ছাত্রীকে তারা আবারো উত্ত্যক্ত করায় অভিযোগ দিলে পরিচালকের নেতৃত্বে বিদ্যালয়ের বৈঠকে ওই ছাত্রীকে মারধর করা হয়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর পরিবার বিচার চেয়ে ইউএনও’র কাছে লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগটি আমলে নিয়ে পুলিশ পরিচালক রাশেদসহ দুই শিক্ষক আকাশ ও ফারুককে মঙ্গলবার রাতে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করেন। এরপর তারা দোষ স্বীকার করলে বিচারক দুই শিক্ষকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। এছাড়া পরিচালক রাশেদের বিরুদ্ধের নিয়মিত মামলা করে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ।

লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজ আলম জানান, সাজাপ্রাপ্তদের লালমনিরহাট কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য