ঠাকুরগাঁওয়ে মুরগীর ডিমে পাওয়া গেলো সাপের বাচ্চামাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাও: বিরল এক ঘটনা ঘটেছে ঠাকুরগাও জেলার রানীশংকৈল উপজেলার ৩নং হোসেনগাঁও ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড ক্ষুদ্র বাঁশবাড়ী গ্রামের মো: খাইরুলের বাড়িতে।

অাজ তিনি আমাদের জানান, গত সোমবার দিবাগত রাতে তার স্ত্রী বাড়ীর পালিত মুরগীর একটি ডিম ভাজাঁর জন্য পাত্রে নিলে। ডিমের কুসুমের মধ্যে গোলাকার একটি পোকা দেখতে পেয়ে আমাকে ডাক দিয়ে দেখায়।

আমি সাথে সাথে একটি কাঠি দিয়ে পোকাটিকে সরিয়ে সোজা করলে পোকাটি সাপের মত ফনা তুলে যা দেখে আমরা ভীতিকর অবস্থায় পড়ে যাই।

মুরগীর ডিম সমন্ধে জানতে চাইলে খাইরুল ইসলামের স্ত্রী বলেন, আমারা বাড়ীতেই মুরগী পালন করি, আমার মুরগীটি ডিম পাড়ছে ৩দিন যার্বৎ, প্রতিদিন আমি গোয়াল ঘড়ের এক পাশ্বে বসনি আছে সেখানে মুরগীটি ডিম পাড়ে।

আমি সকালে ১টি ডিম বসনিতে বসিয়ে দিলে মুরগীটি সেখানে ডিম দেয় । সেখান থেকেইতো ডিম তুলে ঘড়ে তুলে রেখেছি। আর সেদিন রাতে রান্না করার জন্য ডিম এনে দেখি এ অবস্থা।

বিষয়টি এলাকার লোকজনদের জানানো হলে এলাকার অনেকেই এটিকে সাপের বাচ্চা বলে নির্ণয় করে। তবে গত সোমবার রাত ১১টা পর্যন্ত সাপের বাচ্চাটি জীবিত ছিল। পরে মারা গেছে। এ নিয়ে ঐ এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চলতা ও ভীতিকর অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

রানীশংকৈল উপজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ রায়হান আলী জানান, মুরগীর প্রায় ৩৭ ধরনের কৃমি হয়ে থাকে। এটি কৃমি জাতীয় কোন পোকা হতে পারে। এ নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। সেটিকে ভালমত পরিক্ষা নিরিক্ষা করলে আমরা জানতে পারতাম আসলে সেটা কি?

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য