শ্রমিক অবরোধে কপি চাষিদের স্বপ্ন ভঙ্গআনোয়ার হোসেন আকাশ, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) থেকেঃ ঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈলে কপি চাষিরা শ্রমিকদের পরিবহন ধর্মঘট অবরোধের কারনে কপি চাষিদের স্বপ্ন ভঙ্গ হয়ে যাচ্ছে। অধিক লাভের আশায় আগাম জাতের কপি চাষ করেছেন তারা। এখন মনের আশা পুরন হচ্ছেনা। যেখানে প্রতি মন কপি বিক্রী হচ্ছিল আড়াই হাজার টাকা মন বর্তমানে শ্রমিক অবরোধের কারনে প্রতি মন কপি ২০০ টাকায় বিক্রী হচ্ছেনা।

এ নিয়ে কপি চাষিরা বিপাকে পড়েছে। রাজনৈতিক, শ্রমিক সহ বিভিন্নভাবে ডাকা হরতাল অবরোধের আশংকায় রয়েছেন সব্জি চাষিরা। চলতি বছর প্রায় ৫৫০ হেক্টর জমিতে কপির চাষ করা হয়েছে যা গত বছরের তুলনায় ৫০ হেক্টর বেশি। হোয়াইট মার্বেল, নিনজা, কাপ্টেন সহ বিভিন্ন উন্নত জাতের কপির চাষ করা হচ্ছে যা খুবই লাভজনক।

উপজেলার রাউৎনগর ভবানিডাঙ্গী এলাকায় কয়েক হাজার বিঘা জমিতে কপির চাষ করা হয়েছে। সরজমিনে গিয়ে কপি চাষি আঃ রহিম জানান, এক বিঘা জমি বর্গা নিয়ে আগাম জাতের কপি চাষ করেছি। তাতে ২৫ হাজার টাকা খরচ হয়েছে।

প্রায় ৪০ হাজার টাকার কপি তিনি বিক্রী করেছেন। তিনি আরো প্রায় ৪০ হাজার টাকার কপি জমিতে আছে। কিন্তু আশংকা করছেন চলমান হরতাল অবরোধের কারনে ফডিয়ারা কপি না কেনার কারনে চাষিরা বড় ধরনের ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছেন।

এদিকে একই এলাকার আনারুল জানান অন্য কথা, তিনি মানুষের আড়াই বিঘা জমি বর্গা নিয়ে প্রায় ৫০ হাজার টাকা খরচ করে কপি চাষ করেছেন। আশা করছিলেন দুই লক্ষাধিক টাকার কপি বিক্রী করবেন। কিন্তু পরিবহন ধর্মঘটের কারনে ফডিয়ারা কপি না কেনায় তারা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন। এভাবে হরতহাল অবরোধ চলতে থাকলে লাভ তো দুরের কথা পুঁজি উঠানো কষ্ট হয়ে যাবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জয় দেবনাথ বলেন, আগাম জাতের কপি চাষ করে কৃষক বেশি লাভবান হচ্ছেন। যার ফলে গত বছরের তুলনায় চলতি মৌসুমে ৫০ হেক্টর বেশি জমিতে কপির চাষ হয়েছে। কৃষি ও কৃষক দেশের মুল চালিকা শক্তি। কৃষক যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সেদিকে খেয়াল রেখে দেশে কোন ধরনের পরিবহন ধর্মঘট অবরোধ না হওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য