দিনাজপুরে শারদীয় পূনর্মিলনী অনুষ্ঠানদিনাজপুর সংবাদাতাঃ “ধর্ম যার যার, উৎসব সবার” -এই শ্লোগানকে সামনে রেখে অনুষ্ঠিত হলো যুব সাহিত্য সংসদ দিনাজপুর আয়োজিত শিল্পকলা একাডেমী চত্বরে দূর্গাপূজা উপলক্ষে শারদীয় পূনর্মিলনী ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্যপরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার আহবায়ক সুনীল চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর প্রেসক্লাব ও পুজা উদযাপন পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ জেলা শাখার সদস্য সচিব রতন সিং, পূজা উদযাপন পরিষদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায়, চিরিরবন্দর সরকারি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আখতারা বেগম।

সম্প্রীতি বন্ধন দিনাজপুরের আহবায়ক কানিজ রহমান, সদস্য সচিব ড. মাসুদুল হক, শিল্পকলা একাডেমীর কালচারাল অফিসার মিন আরা পারভীন ডালিয়া, বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী ও সুরকার ফরহাদ আহমেদ ও সঙ্গীত শিল্পী হাসান আলী শাহ্।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন যুব সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত কুমার রায়। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন মোঃ রাশেদ, অশোক কুমার, সাফু, গোপাল। প্রধান অতিথি স্বরূপ বকসী বাচ্চু বলেন, হাজার বছর ধরে আমরা সম্প্রীতির ঐতিহ্য লালন করে আসছি। হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনের আন্তরিক সহযোগিতায় এবার দূর্গা পূজা সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাপতির বক্তব্যে সুনীল চক্রবর্তী বলেন, যুগ যুগ ধরে সব ধর্মের মানুষ দূর্গা পূজা উৎসবে অংশগ্রহণ করে আসছে।

আর তাতেই প্রমাণ হয় যে, আমাদের মধ্যে সম্প্রীতির যে সেতুবন্ধন রয়েছে তা কোন অপশক্তি বিনিষ্ট করতে পারবে না। সভা শেষে যুব সাহিত্য সংসদের শিল্পীরা এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে। এতে অংশগ্রহণকারী শিল্পীরা হলেন, হাফিজা শারমিন, মাসুদা আক্তার মাসু, পপি সরকার, ক্ষিতিশ চন্দ্র রায়, সম্ভু ঘোষ, কাসমিরি, সিদ্দিকুল ইসলাম বকুল, তুষার, প্রিয়ংকা, সবুজ, পাপ্পু, তাপস, রানা, নোটন সরকার ও রতন দাস। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন হারুন-উর-রশিদ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য