রাজারহাটে ভূয়া স্বর্ণের গনেশ মূর্তি উদ্ধার২৮ অক্টোবর রোববার কুড়িগ্রামের রাজারহাট থানা পুলিশ ভূয়া স্বর্ণের মূর্তিসহ ২ প্রতারককে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে, রাজারহাট বাজারের অদুরে ২৭ অক্টোবর শনিবার সন্ধ্যায় রাজারহাট সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের গেটে।

পুলিশ জানায়, রাজারহাট সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের গেটে ২৭ অক্টোবর শনিবার সন্ধ্যায় স্বর্ণের মূর্তি বেচাকেনা হওয়ার খবর পেয়ে রাজারহাট থানার এসআই আরমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভূয়া স্বর্ণের গনেশ মূর্তি উদ্ধার সহ হাতে -নাতে মনিরুজ্জামান ওরফে রাজু(৩৮) ও আঃ কাদের (৫০ কে আটক করে।

পরে তাদের থানায় নিয়ে আসা হয়। আটক মনিরুজ্জামান রাজু দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার শিমুলতলী গড়ের পাড় গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র এবং আঃ কাদের দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর উপজেলার দক্ষিণ পলাশবাড়ী গ্রামের কেরাগ উদ্দিনের পুত্র বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে একটি প্রতারক চক্র এ এলাকায় প্রতারনা করার চেষ্টা করছে। তারা কখনও মোবাইল ফোনে ফাঁদ পাতিয়ে আবার কখনও সরাসরি মুর্তি, পয়সা এবং তক্ষকের লোভ দেখিয়ে এসব প্রতারনা করে আসছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে রাজারহাট থানায় একটি প্রতারনার মামলা দায়ের হয়েছে। ২৮ অক্টোবর রোববার সকালে পুলিশ আটক প্রতারকদ্বয়কে কুড়িগ্রাম জেলহাজতে প্রেরণ করেছে। বিষয়টি রাজারেহাট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃষ্ণ কুমার সরকার নিশ্চিত করে বলেন, উদ্ধার হওয়া মূর্তি, স্বর্ণের মূর্তি নয়। পিতলের মূর্তি। ওজন আধা কেজি হতে পারে। প্রতারক ২জনকে প্রাথমিক জ্ঞিাসাবাদে প্রতারনার সত্যতা স্বীকার করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য