ঠাকুরগাঁওয়ে আমন ধানে কারেন্ট পোকার আক্রমণে চাষীরা দিশেহারাঠাকুরগাঁওয়ে এ বছর রোপা আমনে হঠৎ করে কারেন্ট পোকার আক্রমণে চাষীরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। গত মৌসুমের তুলনায় চলতি বছর রোপা-আমন রোপনের নির্দিষ্ট লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেলেও কারেন্ট পোকার আক্রমণে ধানের উৎপাদন বিপর্যয়ের আশংকা করছেন চাষীরা।

ধান পাকতে আর বেশি দিন না লাগলেও পাকার আগেই কারেন্ট পোকার আক্রমণে পোকা লাগার দুই দিনেই গাছ মরে শুকিয়ে ধান চিটা হয়ে যাচ্ছে দ্রুতই।

এ বছর কম বৃষ্টির ফলে এলাকার চাষীরা রোপা আমন রোপন করেন। কিন্তু ধান পেকে ঘরে উঠানোর আগেই কারেন্ট পোকার আক্রমণে চাষীরা হতাশ হয়ে পড়েছেন। উপজেলার মোহাম্মাদপুর, রহিমানপুর, জামালপুর, রায়পুর, আকচাসহ ২১টি ইউনিয়ন এলাকার বেশ কয়েকটি মাঠে সরেজমিনে দেখা যায়, ধানের করুণ অবস্থা। অনেক চাষী কি করবেন তা বুঝে উঠার আগেই গাছ দ্রুত মরে শুকিয়ে যেতে দেখছেন। অনেকই নষ্ট অংশ কেটে ফেলছেন।

চাষী শহিদুল ইসলাম ও তাজুল ইসলাম জানান, খুবই ছোট ছোট কালো ধরনের পোকা ধানের বাইল ও গাছে ছেয়ে গেছে খুব কাছে থেকে দেখা যায়। তারা সময়মত কৃষি অফিসের লোক মাঠে না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও উপজেলা কৃষি অফিসার আনিসুর রহমান জানান, আবহাওয়ার কারণে এ ধরনের হচ্ছে। এ বছর সারাদেশে এ ধরনের পোকার আক্রমণ দেখা যাচ্ছে। আমরা খবর পেয়ে বুধবার বিভিন্ন মাঠে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নিপা ও রাজিউর রহমান রাজু সহ ২১টি ইউনিয়নে মাঠে নামিয়ে দিয়েছে।

তার সকলেই চাষীদের সাথে মাঠে কাজ করছেন এবং পোকা দমনে পিলার নিট, পেন্টনাম, সপসিমসহ বিভিন্ন ওষুধ স্প্রে করার চাষীদের কে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। দু‘একদিনের মধেই এর প্রতিকার হবে বলে তিনি আশা করছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য