জর্ডানে বন্যায় নিহত ২০জর্ডানে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে সৃষ্ট বন্যায় ২০ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে বেশিরভাগই শিশু। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজদের সন্ধানে ডেড সি রিসোর্ট এলাকায় জোর উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন জরুরি বিভাগের কর্মীরা।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, নিখোঁজদের মধ্যে বেশিরভাগই পিকনিকে বের হওয়া স্কুল শিক্ষার্থী। খবর রয়টার্স ও ওয়াশিংটন পোস্টের

বন্যায় ভেসে যাওয়াদের উদ্ধারে হেলিকপ্টার ও সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। জীবিতদের খোঁজে ডুবুরিরাও চালাচ্ছে একের পর এক অভিযান। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অন্তত ৩৭ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জর্ডানের বেসামরিক প্রতিরক্ষা সূত্র।

মৌসুমী বৃষ্টির পর হঠাৎ করে দেখা দেওয়া বন্যা ৪৪ শিশু ও তাদের শিক্ষকদের বহন করা একটি বাসকে ভাসিয়ে নিয়ে যায়, রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে এমনটাই জানিয়েছেন দেশটির পুলিশ প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফরিদ আল শারা।

শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ওই বাসে করে ডেড সি রিসোর্টের পর্যটক এলাকায় যাচ্ছিলেন। খারাপ আবহাওয়ার কারণে ডেড সি এলাকায় ভ্রমণে জর্ডানের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা ছিল। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে স্কুলটি ওই এলাকার দিকে গিয়েছিল বলে ধারণা প্রধানমন্ত্রী ওমার রাজাজের।

হাসপাতাল সূত্রগুলো এখনো অনেকেই নিখোঁজ বলে জানিয়েছে। তুমুল বৃষ্টিতে ডেড সি সংশ্লিষ্ট একটি বাঁধের সেতুও ভেঙে পড়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। উদ্ধার কাজে সহযোগিতা করতে পার্শ্ববর্তী দেশ ইসরাইল হেলিকপ্টার পাঠিয়েছে।

আম্মানের অনুরোধে ডেড সির জর্ডান অংশে অভিযানে সহযোগিতা করা হচ্ছে বলে বিবৃতিতে জানিয়েছে ইসরাইলের সামরিক বাহিনী।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য