যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২যুক্তরাষ্ট্রের কেনটাকিতে এক বন্দুকধারীর গুলিতে এক নারী ও এক পুরুষ নিহত হয়েছে।

বুধবার ওই বন্দুকধারী হেঁটে একটি সুপারমার্কেটে গিয়ে এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করে, এরপর সেখান থেকে বেরিয়ে পার্কিং লটে আরেক নারীকে হত্যা করে বলে জানিয়েছে পুলিশ, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

জেফারসন টাউনের ওই মার্কেটের পার্কিং লটে দাঁড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তি ওই সন্দেহভাজনের সঙ্গে গুলি বিনিময় করলে সে গাড়ি নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে।

কিন্তু পুলিশ তাকে ধরে ফেলে এবং হেফাজতে নিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন জেফারসন টাউনের পুলিশ প্রধান স্যাম রর্জার্স। এ ঘটনায় আর কেউ আহত হয়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।

নিহতরা এলোপাতাড়ি হামলার শিকার হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে এবং এ ঘটনায় হামলাকারীর কোনো উদ্দেশ্যের কথা উল্লেখ করেনি পুলিশ।

রজার্স জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় দুপুর প্রায় আড়াইটার সময় লুইভেলের কেন্দ্রস্থল থেকে প্রায় ২৪ কিলোমিটার দূরে ক্রোগার কোম্পানির সুপারমার্কেটে ঘটনাটি ঘটে।

তিনি বলেন, “অবস্থা বিবেচনায় মনে হচ্ছে পার্কিং লটে ওই নারীকে হঠাৎ করেই হত্যা করা হয়েছে।”

মার্কেটে নিহত পুরুষ লোকটিও ‘একইরকম ঘটনার শিকার’ বলে মনে করছে পুলিশ।

সন্দেহভাজনের নাম ও পরিচয় প্রকাশ করেনি পুলিশ।

ওয়েভথ্রি নিউজকে স্টিভ জিনিগার নামে এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, তার বাবার সঙ্গে ওই সন্দেহভাজনের গুলি বিনিময় হয়েছে।

তিনি জানান, তার মা মার্কেটে কেনাকাটা করার সময় তার বাবা বাইরে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় তিনি গুলির শব্দ পান এবং আতঙ্কিত লোকজনকে মার্কেট থেকে দৌঁড়ে বের হতে দেখেন।

জিনিগার জানান, গুলিবর্ষণকারী সহজভঙ্গিতে পার্কিং লটে থাকা তার বাবার দিকে হেঁটে এগিয়ে যায়, আর তখনই তার বাবা নিজের গাড়ির পেছনে আড়াল নিয়ে সন্দেহভাজনের সঙ্গে গুলি বিনিময় শুরু করে।

জিনিগার বলেন, “এ সময় ওই ব্যক্তি বলতে থাকে, ‘গুলি করো না, আমি তোমাকে গুলি করতে চাই না, সাদারা সাদাদের গুলি করে না’।”

ওই সন্দেহভাজনের গুলিতে নিহত নারী কৃষ্ণকায় বলে জানিয়েছে ওয়েভথ্রি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য