আফগানিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে ভোট গণনা শুরু করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। তবে এখনও অনেক কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ বাকি আছে। সহিংসতা ও কারিগরি ত্রুটির কারণে ভোটগ্রহণে দেরি হয়। এনডিটিভি, আল-জাজিরা।   এ পর্যন্ত নির্বাচনী সংহিংসতায় বিভিন্ন প্রদেশে ১৭০ জন হতাহতের খবর পাওয়া গেছে। তবে অনেক কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ বাকি থাকায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়ার শঙ্কা করছেন কর্মকর্তারা। ভোটের প্রথম দিন কাবুল, কুন্দুজসহ বিভিন্ন এলাকায় ভোটকেন্দ্রে হামলায় কয়েক ডজন নিহত হয়।   রোববার ৪০১ টি কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। এদিনে সকালে কাবুলে আত্মঘাতি বিস্ফোরণে নিহত হয় ১৫ জন।   কর্তৃপক্ষ জানায়, সম্প্রতি চালু করা বায়োমেট্রিক ভোটার তালিকা নিয়ে সমস্যায় পড়েছে বেশিরভাগ কেন্দ্র। এর সঙ্গে হামলার ঘটনা যুক্ত হয়ে অনেক কেন্দ্রে ভোটগ্রহণে দেরি হয়। তাই আরও একদিন ভোট দেয়ার সুযোগ দেয়া হয়েছে।   আফগানিস্তানের এবারের সংসদ নির্বাচনে ২৫০টি আসনের বিপরীতে লড়ছেন আড়াই হাজারের বেশি প্রার্থী। তাদের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী। প্রচারণা পর্ব থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত ১০ জন প্রার্থী জঙ্গি হামলায় নিহত হয়েছে।   তালেবান ও ইসলামিক স্টেট উভয় গ্রুপই নির্বাচন বয়কট করে প্রতিহতের চেষ্টা চালাচ্ছে।আফগানিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে ভোট গণনা শুরু করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। তবে এখনও অনেক কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ বাকি আছে। সহিংসতা ও কারিগরি ত্রুটির কারণে ভোটগ্রহণে দেরি হয়। এনডিটিভি, আল-জাজিরা।

এ পর্যন্ত নির্বাচনী সংহিংসতায় বিভিন্ন প্রদেশে ১৭০ জন হতাহতের খবর পাওয়া গেছে। তবে অনেক কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ বাকি থাকায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়ার শঙ্কা করছেন কর্মকর্তারা। ভোটের প্রথম দিন কাবুল, কুন্দুজসহ বিভিন্ন এলাকায় ভোটকেন্দ্রে হামলায় কয়েক ডজন নিহত হয়।

রোববার ৪০১ টি কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। এদিনে সকালে কাবুলে আত্মঘাতি বিস্ফোরণে নিহত হয় ১৫ জন।

কর্তৃপক্ষ জানায়, সম্প্রতি চালু করা বায়োমেট্রিক ভোটার তালিকা নিয়ে সমস্যায় পড়েছে বেশিরভাগ কেন্দ্র। এর সঙ্গে হামলার ঘটনা যুক্ত হয়ে অনেক কেন্দ্রে ভোটগ্রহণে দেরি হয়। তাই আরও একদিন ভোট দেয়ার সুযোগ দেয়া হয়েছে।

আফগানিস্তানের এবারের সংসদ নির্বাচনে ২৫০টি আসনের বিপরীতে লড়ছেন আড়াই হাজারের বেশি প্রার্থী। তাদের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী। প্রচারণা পর্ব থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত ১০ জন প্রার্থী জঙ্গি হামলায় নিহত হয়েছে।

তালেবান ও ইসলামিক স্টেট উভয় গ্রুপই নির্বাচন বয়কট করে প্রতিহতের চেষ্টা চালাচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য