আকস্মিক বন্যায় ফ্রান্সে ৬ জনের মৃত্যুফ্রান্সের দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলীয় ওদে এলাকায় আকস্মিক বন্যায় অন্তত ছয় জন মারা গেছেন।

এক রাতের কয়েক ঘন্টার মধ্যে কয়েক মাসের সমপরিমাণ বৃষ্টিপাতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে সোমবার জানিয়েছেন ওদের স্থানীয় সরকার প্রধান অ্যালান থিরিওন, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

আবহওয়া পরিষ্কার হলেই উদ্ধারকারী হেলিকপ্টারগুলো উদ্ধার অভিযান শুরু করবে বলে বিএফএম টিভিকে জানিয়েছেন তিনি।

“লোকজন বাড়ির ছাদে আটকা পড়ে আছে। তাদের উদ্ধারে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে, কারণ পানির তীব্র স্রোতের কারণে নৌকা দিয়ে সেখানে যাওয়া যাবে না। খুব বিপজ্জনক অবস্থা,” বলেছেন থিরিওন।

কোনো সতর্কতা ছাড়াই হঠাৎ বন্যার মুখে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলোতে পানি কয়েকটি বাড়ির দোতালার জানালা পর্যন্ত উঠে গেছে।

নিহতদের মধ্যে অন্তত একজন ঘুমের মধ্যেই পানির প্রচণ্ড তোড়ে ভেসে গেছেন বলে জানিয়েছেন থিরিওন।

সোমবার দুর্গত এলাকায় পানির উচ্চতা আরও বৃদ্ধি পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ দিন সকালের পুরোটা সময় বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে বলে আবহওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

ওদে এলাকার স্কুলগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে ও স্থানীয় বাসিন্দাদের বাড়িতে অবস্থান করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বছরের এই সময়ে ফ্রান্সে ভারি বৃষ্টিপাত অস্বাভাবিক কোনো ঘটনা নয়। তবে আবহাওয়াবিদরা বলছেন, দক্ষিণ ফ্রান্সের ভূমধ্যসাগরীয় উপকূল বরাবর সাগরের পানির অতি উষ্ণতা সম্ভবত বৃষ্টির পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়েছে।

দেশটির আবহাওয়া বিভাগের তথ্যানুযায়ী, ১৯০০ সালের পর থেকে চলতি বছরটিই ফ্রান্সের সবচেয়ে উষ্ণতম বছর।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য