দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরে ১ হাজার ২৪২টি দুর্গা মন্ডপের মধ্যে ২৭৫টি অধিক ঝুঁকিপূর্ণ ৪৩২টি ঝুঁকিপূর্ণ এবং ৫৩২টি ঝুঁকিহীন মন্ডপ। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত থাকবেন ৬ হাজার ১৪৩ জন পুলিশ ও আনসার সদস্য।

দিনাজপুরের পুলিশ সুপারের বিশেষ শাখার দায়িত্বে নিয়োজিত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজেমউদ্দীন আহমেদ জানান, আগামীকাল সোমবার থেকে শুরু হওয়া শারদীয় দুর্গোৎসবে জেলার ১৩টি উপজেলার ১ হাজার ২৪২টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গা পূজার আয়োজন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠিত পূজাগুলোর মধ্যে ২৭৫টি অধিক ঝুঁকিপূর্ণ, ৪৩২টি ঝুঁকিপূর্ণ এবং ৫৩৫টি ঝুঁকিহীন মন্ডপের জন্য পুলিশ ও আনসার সদস্য নিয়োজিত থাকবেন ৬ হাজার ১৪৩জন। এর মধ্যে পুলিশ ১ হাজার ১৩৪জন ও আনসার ৫ হাজার ৪জন। এছাড়া সংযুক্ত হয়েছে ২৬টি বাসন্তী পূজা। সব মিলিয়ে এবারে দুর্গা ও বাসন্তীর সংখ্যা ১ হাজার ২৬৮টি।

পূজা চলাকালীন সময়ে সার্বিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পূজা মন্ডপে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েনের পাশাপাশি টহল ডিউটির ব্যবস্থা মজবুত করা হয়েছে। টহলে দায়িত্ব পালন করবেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে র‌্যাব, বিজিবি ও পুলিশ সদস্যরা। সব মিলিয়ে নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও ত্রুটিমুক্ত শারদীয় দুর্গোৎসব সম্পন্ন করতে ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলম জানান, জেলায় এবারে অনুষ্ঠিত ১২৪২টি শারদীয় দুর্গা মন্ডপ ও ২৬টি বাসন্তী পূজা মন্ডপের জন্য ৫০০ কেজি করে চাল বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। মোট ৬৩৪ মেট্রিক টন চাল আজ রোববার সব মন্ডপের মধ্যে বিতরণ সম্পন্ন করা হয়েছে।

পূজা মন্ডপের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে মনিটরিং রুম স্থাপন করা হয়েছে। নির্দিষ্ট টেলিফোন ও মোবাইল নম্বরে পূজার বিষয় সার্বক্ষনিক তথ্য সংগ্রহের জন্য ১জন কর্মকর্তা দিবারাত দায়িত্ব পালনে নিয়োজিত করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য