মার্কিন পাদ্রি ব্রানসনকে মুক্তি দিয়েছে তুরস্কতুরস্কের একটি আদালত মার্কিন খ্রিস্টান পাদ্রি অ্যান্ড্রু ব্রানসনকে মুক্তি দিয়েছে এবং এরইমধ্যে তিনি তুরস্ক থেকে মার্কিন সামরিক বিমানে করে জার্মানিতে চলে গেছেন। ব্রানসনকে আটকের পর তুরস্ক ও আমেরিকার মধ্যে মারাত্মক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছিল।

গতকাল (শুক্রবার) তুরস্কের আদালত ব্রানসনকে তিন বছর এক মাসের কারাদণ্ড দেয় কিন্তু তার সদাচরণ এবং এরইমধ্যে দুই বছর আটক থাকার কথা উল্লেখ করে তাকে মুক্তির আদেশ দেয়। ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে ব্রানসনকে আটক করা হয় এবং চলতি বছরের জুলাই মাস থেকে তাকে ইজমরি শহরে গৃহবন্দী করা হয়।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগানের বিরুদ্ধে ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পরিকল্পনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ব্রানসনকে আটক করা হয়। তবে তিনি এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিলেন। ব্রানসনের মুক্তির পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটার বার্তায় বলেছেন, শিগগিরি ব্রানসন আমেরিকায় ফিরবেন এবং তিনি তার সঙ্গে দেখা করবেন।

আমেরিকার এনবিসি টেলিভিশন বলেছে, তুরস্ক ও মার্কিন সরকার গোপন চুক্তিতে পৌঁছার পর পাদ্রি ব্রানসনকে মুক্তি দেয়া হলো। তুবে তুর্কি সরকার এ বক্তব্য অস্বীকার করে বলেছে, তুরস্কের আদালত স্বাধীন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য