স্মৃতিশক্তি রক্ষার্থে খাবারের ভূমিকাবয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীরের নানা ধরনের পরিবর্তন আসে। এর মধ্যে অন্যতম হলো মস্তিষ্ক। মস্তিষ্কে পরিবর্তনের ফলে তৈরি হয় বিস্মৃতি। আলঝেইমার রোগে আক্রান্ত হয়ে স্মৃতি হারিয়ে ফেলেছেন এমন অনেকেই আছেন।

স্মৃতিশক্তি হারিয়ে যাওয়া ছাড়াও বুদ্ধির অবনতি, উদাসীনতা, কথা বলায় সমস্যা, কথা জড়িয়ে আসা ইত্যাদি সমস্যা দেখা যায়। বিস্মৃতির কারণ হিসেবে খাদ্যাভ্যাসকে দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞগণ। আধুনিক জীবন ও রেস্তোরাঁয় খাওয়ার অভ্যাস অনেকটা ভূমিকা রাখে।

তাই বিশেষজ্ঞগণ বলেছেন, কিছু খাদ্যাভ্যাস এই রোগ প্রতিরোধে সহায়ক হতে পারে। যেমন-সিলিকন ও কোলিনযুক্ত খাবার এই ধরনের রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে থাকে বলে প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। গরুর মগজ, কলিজা, লেটুস পাতা, পেঁয়াজ, দুধ, ডিম ইত্যাদি সিলিকন সমৃদ্ধ খাবার।

এছাড়া মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা ঠিক রাখতে কিছু ভিটামিন যেমন-ভিটামিন ই, বিটা ক্যারোটিন ও ফলিক এসিড সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে পর্যাপ্ত। এছাড়া কিছু অ্যামাইনো এসিড যেমন: কোলিন পাওয়া যায় শিম, বরবটি ও বীজ জাতীয় খাবারে। কোলিন মস্তিষ্কে এসিটাইল কোলিন নামক নিউরোট্রান্সমিটার তৈরিতে সাহায্য করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য