বিহারে যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় মেয়েদের মারধোর, গ্রেপ্তার ৯ভারতের বিহারে একটি আবাসিক স্কুলের যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করায় কয়েক ডজন মেয়েকে মারধোরের ঘটনায় ৯ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতদের বেশিরভাগই কিশোর।

পুলিশ জানায়, সম্প্রতি বিহারের সাউপল জেলার ত্রিভেনিগঞ্জের কাস্তুরবা রেসিডেন্সিয়াল স্কুলে ঢুকে ৩৪ মেয়েকে ব্যাপক মারধোর করে স্থানীয় বখাটেরা। মেয়েদের সকলের বয়স ১২ থেকে ১৬’র মধ্যে। তাদের মারধোরের পর সকলকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে ২৬ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ঘটনার সূত্রপাত হয় শনিবার। কাস্তুরভা রেসিডেন্সিয়াল স্কুলটি মেয়েদের জন্য নির্ধারিত একটি সরকারি স্কুল। শনিবার স্থানীয় কিছু বালক চুরি করে স্কুলটিতে প্রবেশ করতে চাইলে স্কুলের কয়েকজন মেয়ে তাদের ধরে ফেলে ও চলে যেতে বলে।

এক প্রত্যক্ষদর্শী জানায়, কিন্তু স্থানীয় বালকেরা মেয়েদের কথা শোনেনি ও তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা শুরু করে। আত্মরক্ষার্থে মেয়েরা ওই বালকদের মারতে বাধ্য হয়।

পুলিশ জানায়, এই ঘটনার প্রায় দুই ঘণ্টা পর, স্থানীয় সময় বিকেল ৫টার দিকে ওই বালকেরা তাদের বাবা-মা ও আত্মীয়-স্বজনদের নিয়ে পুনরায় স্কুলে আসে। জোর করে স্কুলে প্রবেশ করে ও মেয়েদের মারধোর করে।

পুরো স্কুল ঘিরে রাখে বালকদের বাবা-মা ও আত্মীয়-স্বজনেরা। এরপর মেয়েদের ও তাদের শিক্ষকদের টার্গেট করে মারধোর করা হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, স্কুলটিতে কোন নিরাপত্তাকর্মী বা নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিলো না।

এরপর পুলিশের কাছে এক লিখিত অভিযোগে স্কুলের অধ্যক্ষ বলেন, বারবার শান্ত থাকার অনুরোধ জানানোর পরও উচ্ছৃঙ্খল ছেলেরা মেয়েদের ও শিক্ষকদের মারধোর করা অব্যাহত রাখে।

এই ঘটনায় পুলিশ পূর্বে তিন জন ও আজ সোমবার আরো ছয় জনকে গ্রেপ্তার করেছে। -এনডিটিভি

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য