কাহারোলে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে অনেক নারী বেকারত্ব দূর করছেকাহারোল (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ॥ কাহারোলে অনেকেই বেকারত্ব দূর করার লক্ষ্যে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছেন। দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর চলতি বছরের এপ্রিল মাসে প্রথম ধাপ ৪০ জন ও দ্বিতীয় ধাপ ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে বর্তমানে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি চলছে।

৩ মাস মেয়াদী প্রশিক্ষণ কোর্স অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। দেখা গেছে, অত্র উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের বেকার নারীরা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছেন এবং প্রশিক্ষণে টেইলারিং ও বিউটিফিকেশনের উপর প্রশিক্ষণ চলছে।

প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী একজন প্রশিক্ষণার্থী জানান, দীর্ঘদিন ধরে বেকার অবস্থায় বাড়িতে আছি এবং জানতে পারলাম উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর হতে সরকারি ভাবে টেইলারিং কোর্সে প্রশিক্ষণ শুরু করা হয়। সেই প্রশিক্ষণ সকল নিয়ম-কানুন মেনে ভর্তি হয়ে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছি। এ ধরনের প্রশিক্ষণ গ্রহণ করায় আমাকে বেকারত্বের হাত থেকে রক্ষা পেতে পারি এবং প্রশিক্ষণ আমার খুব ভাল লাগছে।

আমার মতো অন্যরাও যেন ভবিষ্যতে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে সেই আশায় করছি আমি। টেইলারিং কোর্সের প্রশিক্ষক মোছাঃ মল্লিকা খাতুন ও বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষক মোছাঃ কামরুন নাহার বলেন, অত্র প্রশিক্ষণে যে সমস্ত প্রশিক্ষণার্থী উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছেন তারা অত্যান্ত গরীব ও মেধাবী।

তারা মনোযোগ সহকারে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করলে ভবিষ্যতে তাদেরকে অন্যের নিকট অর্থের জন্য হাত বাড়াতে হবে না। যদি নিজেরাই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত হিসাবে গড়ে তুলতে পারে। এদিকে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নিবেদিতা দাস জানান, অত্র উপজেলায় সরকারি ভাবে আপাতত দু’টি প্রশিক্ষণ কোর্সের মধ্যে একটি ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে অন্যটি বর্তমানে চলমান রয়েছে।

পৃথক পৃথক ট্রেডের জন্য দুই জন প্রশিক্ষক ও একজন অফিস ট্রেইনার রয়েছে। যারা এ ধরনের প্রশিক্ষণ কোন দিন গ্রহণ করেনি, তারাই কেবল মাত্র অংশ গ্রহণ করছে। প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষণার্থীদের জন্য প্রতিদিন একশত টাকা করে যাতায়াত বাবদ এবং প্রশিক্ষণ শেষে একটি সনদ পত্র প্রদান করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য