পঞ্চগড়ে ছুরির আঘাতে একই পরিবারের গুরুতর আহত ৪পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে বড় বউয়ের ছুড়িকাঘাতে একই পরিবারেে চারজনের গুরুতর আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে সাহেবজোত গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন হবিবর রহমানের স্ত্রী জোসনা বেগম (৫০), রহমত আলী (২২) ও তার স্ত্রী হোসনে আরা বেগম (২০) এবং রেজাউল ইসলাম (২৫)। গুরুতর আহত দুজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হবিবর রহমানের দুই পুত্র রেজাউল ও রহমত আলী। রেজাউলের শিশুপুত্র সাদেক (৪) তার দাদা-দাদীর কাছে লালন পালন হয়ে আসছিল। দুপুরে শিশু সাদেক খেলা শেষে ময়লা প্যান্ট থাকায় তার ছোট চাচি হোসনে আরা বেগম বাড়িতে পাঠিয়ে দেন।

ছেলের ময়লা প্যান্ট দেখে সখিনা বেগম তার শ্বাশুড়ী বাড়িতে না থাকায় জা হোসনে আরাকে নানা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করায় উভয়ের মাঝে দ্বন্ধ তৈরি হয়। এতে এক পর্যায়ে সখিনা বেগম চরম ক্ষীপ্ত হয়ে বাড়ি থেকে থাকা ছুড়ি এনে এলোপাথারি আঘাতে এই ঘটনা ঘটে।

পরে আহতদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসে। তাদের সহযোগিতায় আহতদের তেতুলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থায় অবনতি হলে রাতেই ২ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আধুনিক সদর হাসপাতাল পঞ্চগড়ে প্রেরণ করা হয়। তেতুলিয়া মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম জানান, একজনকে আটক করা হয়েছে।

ঘটনাটি পারিবারিক কলহের জেরে সংঘটিত বলে জানান মডেলা থানা পুলিশ। তবে এ ঘটনায় ওই এলাকার প্রতিবেশীরা চরম ক্ষুদ্ধ প্রকাশ করে জানান, এর আগে সখিনা বেগম পরিবারের প্রতি এরকম ক্ষীপ্ত হয়ে মারধরের ঘটনা রয়েছে। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার বিচার শালিসও হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য