জাপানে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ট্রামির আঘাত, নিহত ২জাপানে আঘাত হানা শক্তিশালী টাইফুন ত্রামির তাণ্ডবে দুই জন নিহত হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যায় পশ্চিম জাপানের উপকূল দিয়ে স্থলে উঠে আসার পর সোমবারের প্রথমদিকে টাইফুনটি রাজধানী টোকিও ওপর দিয়ে বয়ে যায় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

শক্তিশালী এই টাইফুনটি টোকিওজুড়ে ধ্বংসাবশেষ ছড়িয়ে ছিটিয়ে ফেলার পাশাপাশি গাছ উপড়ে রেললাইনের ওপর নিয়ে ফেলে।

এতে রেললাইনগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অথবা ট্রেন দেরি করায় হাজার হাজার যাত্রী স্টেশনে আটকা পড়ে থাকেন।

ত্রামির কারণে উত্তরাঞ্চলীয় প্রধান দ্বীপ হোক্কাইডোতে ভারি বৃষ্টিপাত, প্রবল বাতাস বয়ে যাওয়ার ও ভূমিধসের সম্ভাবনা আছে বলে সতর্ক করেছে জাপানের আবহাওয়া সংস্থা। গত মাসে এই দ্বীপটিতে প্রাণঘাতী ভূমিকম্প হয়েছিল।

এক মাত্রার এই ঝড়টিতে দুই জন নিহত ও প্রায় ১৩০ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাপানের গণমাধ্যম এনএইচকে। আরও দুই জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছে তারা। প্রায় চার লাখ বাড়ি বিদ্যুৎবিহীন রয়েছে।

এনএইচকে সম্প্রচারিত ফুটেজে একটি ট্রেন স্টেশনের বাইরে কয়েকশত লোককে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। ২৩০টিরও বেশি ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছে এনএইচকে।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী স্থানীয় সময় রোববার সকাল ১১টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ওসাকার কানসাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েগুলো বন্ধ রাখা হয়েছিল।

সোমবার সকাল ৬টার পর রানওয়েগুলো আবার চালু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিমানবন্দরটির কর্তৃপক্ষ।

গত মাসে জাপানে শক্তিশালী আরেকটি টাইফুন আঘাত হেনেছিল। জেবি নামের ওই টাইফুনটির কারণে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাসে কানসাই বিমানবন্দরের রানওয়েগুলো ডুবে গিয়েছিল। এরপর ২১ সেপ্টেম্বর বিমানবন্দরটির স্বাভাবিক কার্যক্রম ফের শুরু হয়।

জেবি গত ২৫ বছরের মধ্যে জাপানে আঘাত হানা সবচেয়ে শক্তিশালী টাইফুন ছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য