নামাজের জন্য মসজিদ অপরিহার্য নয় ভারতের সুপ্রিম কোর্টনামাজে মসজিদের অপরিহার্যতা প্রশ্নে ১৯৯৪ সালে দেওয়া রায় বহাল রাখলো ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। ১৯৯৪ সালে ঘোষিত রায়ে বলা হয়েছিল, নামাজ যে কোনও জায়গায় পড়া যেতে পারে।

রায়কে চ্যালেঞ্জ করে করা আপিল নিষ্পত্তি করতে গিয়ে পুরনো রায়ের পক্ষেই অবস্থান নিল ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। অবসরের আগে এটিই শেষ রায় সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের।

১৯৯৪ সালে দেশের সর্বোচ্চ আদালত সাফ জানিয়ে দিয়েছিল যে, নামাজ যে কোনও জায়গায় পড়া যেতে পারে। তার জন্য মসজিদ অপরিহার্য নয়।

সঙ্গে এ-ও জানিয়ে দিয়েছিল যে, সরকার প্রয়োজনে মসজিদের জমির দখল নিতে পারবে। আড়াই দশকের পুরনো এই রায়কেই চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিল বেশ কয়েকটি মুসলিম দল।

আপিলকারীরা চেয়েছিল, ভারতের সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতির বেঞ্চ ১৯৯৪ সালে দেওয়া রায়টি পুনর্বিবেচনা করতে রাজি হোক।

সেক্ষেত্রে সাত বিচারপতিবিশিষ্ট বড় একটি বেঞ্চ গঠন করে ইসলামে মসজিদ অপরিহার্য কিনা সে প্রশ্নের মীমাংসা করার সুযোগ সৃষ্টি হতো। তবে সুপ্রিম কোর্ট পূর্ববর্তী আদেশ বহাল রাখলো।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য