সন্দেহভাজন রুশ গোয়েন্দার ‘আসল পরিচয়’পক্ষত্যাগী রুশ গোয়েন্দা সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়াকে হত্যাচেষ্টায় জড়িত এক ব্যক্তির ‘সত্যিকারের পরিচয়’ উদঘাটনের দাবি করেছে অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের একটি ওয়েবসাইট।

বেলিংক্যাট গ্রুপের ওই ওয়েবসাইট বলছে, সলসবারি হামলায় সন্দেহভাজন হিসেবে রুসলান বশিরভ নামে যে রাশিয়ানের নাম এসেছে, তিনি আসলে রুশ সামরিক গোয়েন্দা সংস্থা জিআরইউ-র একজন কর্নেল; নাম আনাতোলি ভ্লাদিমিরোভিচ চেপিগা।

এ প্রসঙ্গে যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তাদের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি, জানিয়েছে বিবিসি।

বেলিংক্যাট বলছে, কর্নেল চেপিগা এর আগে চেচনিয়ায় কর্মরত ছিলেন। তিনি রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ পদক ‘হিরো অব রাশিয়ান ফেডারেশন’-এও ভূষিত হয়েছেন।

পাসপোর্টের ছবি থেকেই চেপিগার পরিচয় পাওয়া গেছে, দাবি বেলিংক্যাটের। যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তারা রুসলানের যে ছবিটি দিয়েছেন, তার সঙ্গে ২০০৩ সালে তোলা চেপিগার ছবির বেশ মিল আছে। যদিও দেড় যুগ আগের ছবিটিতে জিআরইউর কর্নেলকে আরও কমবয়সী লাগছিল।

ব্রিটিশ তদন্ত কর্মকর্তারা এর আগে পক্ষত্যাগী গুপ্তচর ও তার মেয়ের ওপর হামলার দায় দিয়েছিলেন রুসলান বশিরভ ও আলেক্সান্দার পেত্রভ নামে দুই রুশ গুপ্তচরের ওপর। রুসলান ভুয়া পাসপোর্টে যুক্তরাজ্যে এসেছিলেন বলেও ধারণা কর্মকর্তাদের।

মস্কো শুরু থেকেই স্ক্রিপাল হত্যাচেষ্টায় জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

যুক্তরাজ্য যে দুই ব্যক্তিকে সন্দেহভাজন বলেছে, তারা বেসামরিক নাগরিক বলে জানান রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

রুসলান ও পেত্রভ পরে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে হাজির হয়ে মার্চে নোভিচক হামলার সঙ্গে তাদের কোনো ধরনের যোগসাজশ ছিল না বলে দাবি করেন। বলেন, ক্যাথেড্রাল দেখতেই পরপর দুইদিন সলসবারি গিয়েছিলেন তারা।

যুক্তরাজ্য দুই রুশের এ বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করে।

জুলাইয়ে সলসবারির কাছেই এক বাড়িতে আরও দুই ব্যক্তির নোভিচক সংক্রমণের কথা জানান যুক্তরাজ্যের তদন্ত কর্মকর্তারা। আক্রান্তদের মধ্যে ডন স্টারগেস নামে এক নারী পরে মারা যান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য