থাইল্যান্ডে ব্রিটিশ কোটিপতি ও তার স্ত্রী খুননিখোঁজ হওয়ার এক সপ্তাহ পর থাইল্যান্ডের উত্তরাঞ্চলে ব্রিটিশ এক ধনকুবের এবং তার থাই স্ত্রীর ‍মৃতদেহ খুঁজে পাওয়া গেছে।

পুলিশের ধারণা, ভাড়াটে খুনি দিয়ে কেউ তাদের হত্যা করিয়েছে।

খুন হওয়া ৬৪ বছর বয়সী অ্যালান হগ ও তার একই বয়সী স্ত্রী নদ সাদ্দায়েনের লাশ ফ্রে প্রদেশে তাদের মালিকানাধীন জমিতেই পুতে রাখা হয়েছিল বলে জানিয়েছে বিবিসি।

পুলিশ জানিয়েছে, যুক্তরাজ্যের এডিনবারা থেকে আসা হগকে গুলি করে ও তার স্ত্রীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় তিন সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে। নদ সাদ্দায়েনের ভাই তাদের ওপর হামলা চালানোর জন্য এদের ভাড়া করেছিল বলে অভিযোগ।

পুলিশ নদ সাদ্দায়েনের ভাইকেও গ্রেপ্তার করেছে।

স্থানীয় পুলিশ কমান্ডার মানাস কের্দসুখো বলেছেন, “দীর্ঘদিন ধরে চলা পারিবারিক দ্বন্দ্ব, বিবাদ ও সম্পত্তি এই হত্যাকাণ্ডের কারণ।”

গত সপ্তাহ থেকে এই দম্পতিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না, পুলিশের কাছে এমন একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল।

হগের মালিকানাধীন সম্পত্তি থেকে নিয়ে যাওয়া বলে কথিত একটি পিকআপ ট্রাক খুঁজে বের করে সন্দেহভাজন ওই খুনীদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

পরে জিজ্ঞাসাবাদে তারা হগ ও তার স্ত্রীকে খুন করার কথা স্বীকার করে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

কয়েক বছর আগে হগ থাইল্যান্ডে গিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করতে শুরু করেন। ফ্রে-তে তিনি একটি বিলাসবহুল ভিলা নির্মাণ করেন। এই ভিলাতে একটি সুইমিং পুল এবং দৃষ্টিনন্দন একটি গ্রীষ্মাবাস আছে বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলোতে বলা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য