পঞ্চগড়ে বাবা-মাকে হত্যাকারী ছেলের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপঞ্চগড়ে চাঞ্চল্যকর বাবা-মাকে হত্যাকারী ছেলে মঞ্জুরুল হাসান শান্তর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আনিছুর রহমান এই আদেশ দেন। এ সময় আসামি শান্ত আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২২ মার্চ পঞ্চগড় জেলা শহরের রামেরডাঙ্গা পুরাতন ক্যাম্প মহল্লায় ভাই ভাই মঞ্জিলের বাসায় মানসিক বিকারগ্রস্ত ছেলে শান্ত প্রকাশ্য দিবালোকে তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান ও মা সুলতানা বেগমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করে।

খবর পেয়ে পঞ্চগড় থানা থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শান্তকে ধরতে গেলে তৎকালীন পঞ্চগড় থানার এসআই আরিফ ও এএসআই এনামুল ছুরির আঘাতে আহত হন। পরে অতিরিক্ত পুলিশ তাকে আটক করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় শান্তর বড় ভাই আক্তারুজ্জামান সাগর ওই দিনই পঞ্চগড় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রঞ্জু আহম্মেদ গত ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই আদালতে চার্জশিট প্রদান করে। পরে দীর্ঘ আইনি প্রক্রিয়া ও ১৪ জন সাক্ষীর সাক্ষগ্রহণ শেষে আদালত এই রায় প্রদান করেন।

বাদী পক্ষে এপিপি অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম ও আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট আব্দুল আলিম ও অ্যাডভোকেট বলরাম গুহ মামলা পরিচালনা করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য