ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ ্অবশেষে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে এক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষনের চেষ্টা ঘটনাস্থল ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আমিরুল ইসলাম সরেজমিনে তদন্ত করে সত্যতা পেয়ে ধর্ষকের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১২ সেপ্টেম্বর দুপুর ২টার দিকে উপজেলার চেংগ্রামে।

থানায় এজাহার সূত্রে জানা গেছে, চেংগ্রামের দিন মজুর ইদ্রিস আলীর বাক প্রতিবন্ধী মেয়ে রিনা খাতুন (২৫) নিজ বাড়ীতে দুপুরে তার ঘরে ঘুমাচ্ছিল। তার মা বাবা বাড়ীতে না থাকার সুবাদে একই গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে আনোয়ার হোসেন বাক প্রতিবন্ধী রিনা খাতুনকে ঘুমন্ত অবস্থায় জাপটে ধরে ধর্ষনের চেষ্টা করতে থাকে। ধস্তা ধস্তির এক পর্যায়ে তার পরনের এবং গায়ের জামা কাপড় ছিঁড়ে যায়।

একই সময় তার মা মঞ্জুয়ারা বেগম বাড়ীতে আসে ঘটনা দেখে এবং আনোয়ারকে জাপটে ধরে এবং চিৎকার করলে পাশ্ববর্তী বাড়ীর লোকজন আসে এবং ঘটনা দেখে। এ সময় আনোয়ার হোসেন জোরপূর্বক মঞ্জুয়ারা বেগমের হাত থেকে পালিয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে কিছু দেওনিয়া মীমাংসার ছলোনায় সময় ক্ষেপন করতে থাকে।

দিন মজুর ইদ্রিস আলী আর্থিক দৈন্যতার কারনে ওই সব মহৎদের কথার উপর নির্ভর করায় মামলাটি করতে বিলম্ব ঘটে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আমিরুল ইসলাম, ওসি তদন্ত ফেরদৌস হাসান ও এস,আই মোজাফ্ফর ও এ,এস,আই মাসুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং স্থানীয় লোকজনের কাছে ঘটনার সত্যতা পেয়ে ধর্ষক আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য