গাইবান্ধায় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের শিক্ষা দিবস পালিতআরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ মহান শিক্ষা দিবস উপলক্ষে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে সোমবার জেলা শহরে র‌্যালী ও সংগঠন কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন মাহবুব আলম মিলন, পরমানন্দ দাস, রাহেলা সিদ্দিকা, বন্ধন কুমার, জুয়েল মিয়া, মাসুদা আকতার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ১৯৬২ সালে স্বৈরাচারী শাসক আইয়ুব খান ‘শরিক কমিশন’ নামে একটি শিক্ষা কমিশন গঠন করে। এই কমিশন শিক্ষাকে পণ্য ও বাণিজ্যের দিকে নিয়ে যায়। এর বিপরীতে সেদিন ১৯৬২ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর মিছিল বের করে ছাত্র জনতা। সেই মিছিলে পুলিশের গুলিতে শহীদ হয় বাবুল, মোস্তফা, আজিজ উল্যাহসহ নাম না জানা অনেকে।

আজকেও দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা নানা ধরণের অসঙ্গতি নিয়ে আলোচনা করেন। বক্তারা আরও বলেন, ডাকসুসহ দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র সংসদ দিতে হবে। সকল ধরণের ফি বৃদ্ধি বন্ধ করে শিক্ষাকে বাণিজ্যের হাত থেকে রক্ষা করতে হবে এবং শিক্ষকদের সামাজিক মর্যাদা ও বেতন কাঠামো নিশ্চিতসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্বশাসন করতে হবে।

আলোচনা সভা শেষে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। কাউন্সিলে ৯ সদস্য কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটির কর্মকর্তারা হচ্ছে- সভাপতি পরমানন্দ দাস, সহ-সভাপতি মাহবুব আলম মিলন, সাধারণ সম্পাদক রাহেলা সিদ্দিকা, সাংগঠনিক সম্পাদক বন্ধন কুমার, দপ্তর সম্পাদক জুয়েল মিয়া, অর্থ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মোশারফ হোসেন, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক মাসুদা আকতার, সদস্য আব্দুর রাজ্জাক।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য