বিরোধপূর্ণ দক্ষিণ চীন সাগরে জাপানের সাবমেরিন মহড়াবিরোধপূর্ণ দক্ষিণ চীন সাগরে প্রথমবারের মতো সাবমেরিন মহড়া চালিয়েছে জাপান। সোমবার জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। এই সাবমেরিন মহড়ার মধ্য দিয়ে চীন ও কয়েকটি দেশের মালিকানা দাবি করা বিতর্কিত জলসীমায় জাপানের উপস্থিতি বৃদ্ধির ইঙ্গিত। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ চীন সাগরে জাপানের ম্যারিটাইম সেল্ফ ডিফেন্স ফোর্সের সাবমেরিন এই মহড়া চালায়। এতে জাপানের আরও বেশ কয়েকটি যুদ্ধজাহাজ অংশ নেয়। এছাড়া ছিল কাগা হেলিকপ্টার কেরিয়ার। যা ভারত মহাসাগরের দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় দুইমাসের সফরে রয়েছে।

জাপানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের নারী মুখপাত্র জানান, এই প্রথমবার জাপানের সাবমেরিন ওই অঞ্চলে মহড়া চালিয়েছে। মহড়ায় শনাক্তকরণ এড়ানোর অনুশীলন করা হয়।

এই মহড়ার কারণে চীন ক্ষুব্ধ হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। একটি ব্রিটিশ রয়্যাল নেভির আক্রমণকারী জাহাজ ওই এলাকা পাড়ি দেওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই জাপান এই মহড়া চালালো। এর আগে একই ধরনের মহড়া চালায় যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীও।

উল্লেখ্য, জাহাজ চলাচলের বাণিজ্যিক রুট ও খনিজসম্পদে ভরপুর দক্ষিণ চীন সাগরের বেশ কিছু এলাকা নিজেদের বলে দাবি করে আসছে চীন। এ দাবি থেকেই ফিলিপাইনের উপকূলবর্তী স্কারবুরাফ শোয়লে কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণ করেছে তারা। সেখানে বানাতে যাচ্ছে সেনাঘাঁটি। সীমান্ত থেকে মাত্র ২৩০ কিলোমিটার (১৪০ মাইল) দূরবর্তী এ দ্বীপের মালিকানা দাবি করে আসছে ফিলিপাইন। কিন্তু চীনের আপত্তির কারণে তা সে দাবি প্রতিষ্ঠায় ব্যর্থ হওয়ায় আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করে ম্যানিলা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য