বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর অনির্দিষ্টকাল বন্ধ ঘোষণাবাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের ভুটান থেকে আমদানি করা পাথর বোঝাই ১০৩টি ট্রাক বন্দর চার্জ (ট্যারিফ) পরিশোধ না করে গেট ভেঙে পণ্য খালাস করায় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্দর বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থলবন্দর বন্ধ ঘোষণা করলেও ইমিগ্রেশন ব্যবস্থা চালু রয়েছে।

বন্দর সূত্রে জানা যায়, সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টরা বাংলাবান্ধা ল্যান্ডপোর্ট লিমিটেডের বকেয়া পরিশোধ না করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট তাদের বন্দর চার্জ দুই কোটি ৫০ লাখ টাকা বকেয়া রেখেছেন। তাই বন্দর কর্তৃপক্ষ সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টদের নতুন করে আমদানি করা পণ্যে বন্দর চার্জ নগদ টাকা পরিশোধ করতে বললে এ অচল অবস্থা সৃষ্টি হয়।

বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে বাংলাবান্ধা ক্লিয়ারিং অ্যান্ড ফরোয়ার্ডিং (সিএন্ডএফ) এজেন্টরা ও ট্রাক চালকরা পুরো বন্দর এলাকায় তাণ্ডব চালায়। এসময় নিজের নিরাপত্তার দিক চিন্তা করে বন্দরের প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা রাতারাতি বন্দর ত্যাগ করেন।

বাংলাবান্ধা ল্যান্ডপোর্ট লিমিটেডের সহকারী ম্যানেজার কাজী আল তারিফ জানান, ‘এমন পরিস্থিতিতে বন্দরে হামলা, লুটপাট ও ভাঙচুরের ঘটনায় আমরা মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে এবং বন্দর অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ’

বন্দর চার্জ (ট্যারিফ) পরিশোধ না করায় গত ৩০ আগস্ট থেকে ভুটান থেকে আমদানি করা পাথর বোঝাই ট্রাকগুলো বন্দরে আটকা পরে। এতে করে বন্দরে অচল অবস্থা সৃষ্টি হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য