10 17 18

বুধবার, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ২রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ৭ই সফর, ১৪৪০ হিজরী

Home - দিনাজপুর - ডাক্তারের বদলী আদেশ প্রত্যাহারের দাবীতে খানসামায় মানববন্ধন

ডাক্তারের বদলী আদেশ প্রত্যাহারের দাবীতে খানসামায় মানববন্ধন

ডাক্তারের বদলী আদেশ প্রত্যাহারের দাবীতে খানসামায় মানববন্ধনবীরগঞ্জ (দিনাজপুর) সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের খানসামা উপজেলা (পাকেরহাট) স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স-এ কর্মরত এনেস্থিসিয়া চিকিৎসক ডা. আব্দুল আউয়ালের বদলী আদেশ প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

App DinajpurNews Gif

বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকালে পাকেরহাটস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এর সামনে এলাকাবাসীর উদ্যোগে মানববন্ধনটি অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ বিভিন্ন ফেস্টুন ও প্লেকার্ড হাতে নিয়ে দাঁড়ান। হাতে লেখা এসব বিভিন্ন ফেসটুনে ডা. আব্দুল আউয়ালের বদলী স্থগিত করে পাকেরহাট হাসপাতালে রাখার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

একজন এলাকাবাসীর হাতে ফেস্টুনে লেখা ছিল,”আমি গরীব, আমার ডেলিভারী রোগী আছে হাসপাতালে সিজার করতে চাই। ডাক্তার আউয়াল বদলী হলে কিভাবে করাবো! ডাক্তার আউয়ালকে বদলী করা যাবে না!

আরেকজনের হাতে লেখা ফেসটুনে দেখা যায়, আমরা ডাক্তার আউয়ালের বদলী চাইনা, সেবার মান ভালো হওয়ার সত্ত্বেও ডাক্তার আউয়ালের বদলী কেন?

মানববন্ধনে নেতৃত্বদান কারী যুবক দয়াল চন্দ্র রায় বলেন,” ডাক্তার আউয়ালের সেবার মান ভালো হওয়ার সত্ত্বেও ওনাকে বদলী করাটা আমরা মেনে নিতে পারছি না! তাই আমি এই মানববন্ধনে স্বইচ্ছায় দাড়িয়েছি।

এ বিষয়ে বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা(ভারপ্রাপ্ত) ডা.মোঃ শামসুদ্দোহা মুকুলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,” বর্তমানে আমাদের এখানে রোগীর অনেক চাপ। প্রতিদিন নতুন নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছেন,সেই তুলনায় ডাক্তার আছি মাত্র দুজন।

শূন্য পদের বিপরীতে ডাক্তার কম থাকায় এই মূহুর্তে ডাক্তার আউয়ালকে বদলী করলে সেবার মান ব্যাহত হবে এবং সিজার বন্ধ হয়ে যাবে তাই প্রশাসনের কাছে অনুরোধ,আপাতত ডাক্তার আউয়ালকে যেনো বদলী করা না হয়।

উল্লেখ্য, বছরখানেক পূর্বে ডাক্তার আউয়াল নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। সেখান থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে (পাকেরহাট) খানসামায় বদলী হয়ে আসেন কিন্তু বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজে তাঁর বদলী হয়েছে।

সার্বিক দিক বিবেচনায় ডা.আউয়ালের বদলি আদেশ প্রত্যাহারের দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য