ইদলিবে হামলা শুরু, নিহত ১০ বেসামরিকআন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সতর্কতা অগ্রাহ্য করে সিরিয়ার বিদ্রোহী-অধ্যুষিত ইদলিব প্রদেশে হামলা শুরু করেছে সিরিয়া সরকার। মঙ্গলবার প্রদেশটিতে যুদ্ধবিমান দিয়ে অন্তত ২৪টি বিমান হামলা চালিয়েছে সরকারি বাহিনী। এতে অন্তত ১০ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন, আহত হয়েছেন আরো ২০ জন। তানা তিন সপ্তাহ পর এটাই ছিল প্রদেশটিতে বাশার আল-আসাদ সরকারের প্রথম হামলা।

ইদলিবে হামলা হলে প্রদেশটি অচিরেই একটি ‘রক্তগঙ্গায়’ পরিণত হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। এ বিষয়ে আগ থেকেই সিরিয়াকে সতর্ক করে আসছে তারা। সম্প্রতি জাতিসংঘ সিরিয়ার মিত্রদেশ রাশিয়া ও তুরস্কের প্রতি ইদলিবে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ এড়াতে সাহায্য করতে আহবান জানিয়েছে। উল্লেখ্য, তুরস্ক ও রাশিয়া ইদলিবে কয়েকটি বিদ্রোহী দলেরও সমর্থক।

ইদলিবের বর্তমান বাসিন্দার সংখ্যা ৩০ লাখ। সেখানে সংঘর্ষ হলে বেসামরিক নাগরিকসহ অগণিত প্রাণহানী হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তা সত্ত্বেও মঙ্গলবার অন্তত ২৪টি বিমান হামলা চালিয়েছে সরকারি বাহিনী। মূলত জিসর আল-শুঘৌর শহর উদ্দেশ্য করেই হামলা চালানো হয়েছে। টানা কয়েক ঘণ্টা ধরে হামলা চালানো হয়।

স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘হোয়াইট হেলমেটস’ জানিয়েছে, হামলায় অন্তত ১০ বেসামরিক নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরো ২০ জন। অন্যান্য সূত্র জানিয়েছে, নিহতের সংখ্যা ১৭।

হোয়াইট হেলমেটসের কর্মী আহমেদ ইয়ারজি বলেন, নিহতদের মধ্যে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী পাঁচ শিশুও রয়েছে। এরা সবাই একই পরিবারের সদস্য ছিল। তিনি বলেন, কেবলমাত্র বেসামরিক নাগরিকদের ভবনগুলো লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়। – আল জাজিরা

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য