শ্রীলঙ্কার শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাকে গ্রেফতারের নির্দেশ আদালতেরগৃহযুদ্ধের সময় ১১ জন ব্যক্তিকে অপহরণ এবং হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে শ্রীলঙ্কার এক শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির একটি আদালত। বুধবার এ নির্দেশ দেয় আদালত।

কলম্বোর ফোর্ট ম্যাজিস্ট্রেট লংকা জয়ারত্ন, চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ অ্যাডমিরাল রবিন্দ্র বিজেগুনারত্নেকে আটক করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন। মূল ঘাতককে সহায়তা করার কথিত অভিযোগে তাকে গ্রেফতারের এ নির্দেশ দেয়া হয়। মূল ঘাতক বর্তমানে পলাতক রয়েছে।

এদিকে, নৌবাহিনীর এক গোয়েন্দা কর্মকর্তা চন্দনা প্রসাদ হেত্তিয়ারাচ্চির বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, যুদ্ধের শেষ দিকে তিনি তার হিট স্কোয়াডকে দিয়ে ২০০৮ ও ২০০৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে এই ১১ জনকে হত্যা করিয়েছেন।

নৌবাহিনীর দাবি, তাদেরকে অবৈধভাবে আটকের পর হত্যা করা হয়েছে। তাদের লাশ কখনই খুঁজে পাওয়া যায়নি। এক মাস অনুসন্ধানের পর কলম্বোতে চলতি মাসের শুরুর দিকে হেত্তিয়ারাচ্চি গ্রেফতার হন।

ওই অনুসন্ধানের জন্য সারা বিশ্ব জুড়েই সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। শ্রীলংকার ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট ম্যাজিস্ট্রেটকে জানান, অভিযুক্তের গ্রেফতার এড়ানোর পেছনে অ্যাডমিরাল বিজেগুনারত্নের ভূমিকা রয়েছে বলে তথ্য প্রমাণ রয়েছে। -সাউথ এশিয়ান মনিটর ও এএফপি

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য