বিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের বিরলে পূর্ব বিরোধের জের ধরে পায়ের রগ কেটে ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। গুরুতর আহত ঐ ইউপি সদস্য চিকিৎসাধীন রয়েছে। থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জানা গেছে, উপজেলার ১১ নং পলাশবাড়ী ইউপি’র সাকইর গ্রামের মৃত নশর উদ্দীনের পুত্র ৬নং ওয়ার্ড সদস্য ছহিদুর রহমান (৫৫) কে সোমবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টায় ফরমানপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন স্থানে দূর্বৃত্তরা আটক করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দুই পায়ের গোড়ালীর রগ কেটে ফেলে।

এ সময় সে চিৎকার করলে তাঁর হাতসহ শরীরে এলোপাথারী কুপিয়ে জখম করে মৃত ভেবে দূর্বৃত্তরা তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে চিকিৎসক তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করে।

গুরুতর আহত ইউপি সদস্যের পরিবারের পক্ষ থেকে হামলার কারণ হিসাবে প্রতিপক্ষ ফরমানপুর গ্রামের রমযান আলীর পুত্র ইদ্রিস আলীর নেতৃত্বে দূর্বৃত্তরা হামলা চালিয়েছে বলে দাবী করা হয়েছে।

আহতকে ঢাকায় পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়। মঙ্গলবার দুপুরে এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ এ টি এম গোলাম রসুল জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স প্রেরণ করা হয়েছে। হামলায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য