দিনাজপুরে ইয়াসমিন ট্রাজেডী ২৩ বছর পুর্তি ও ৭ শহীদ স্মরণে স্মরণ সভা দোয়া খায়েরদিনাজপুর সংবাদাতাঃ ইয়াসমিন ট্রাজেডী ও সিরাজ, সামু, কাদেরসহ ৭ শহীদ স্মরণে জেলা জাগপার উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া খায়ের অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৭ আগষ্ট বিকালে বাহাদুর বাজারস্থ জেলা জাগপার অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভা ও দোয়া খায়ের অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখেন, দিনাজপুর জেলা জাগপা আহ্বায়ক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব রকিবউদ্দীন চৌধুরী মুন্না।

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, যুব জাগপার কেন্দ্রীয় আহবায়ক আরিফুল হক তুহিন, দিনাজপুর জেলা জাগপার যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রহমান, আহবায়ক কমিটির সদস্য ওয়ামিক আলভী তুহিন, মোঃ মাসুদ রানা চৌধুরী ডাব্লু, আবুল কাশেম, ফরিদ উদ্দীন, খলিলুর রহমান, জেলা যুব জাগপার সাধারণ সম্পাদক আবিদ হোসেন চুন্নু, সহ-সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাগর হোসেন মিলু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক হাজারী, জামাল উদ্দীন আহমেদ প্রমূখ। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ১৯৯৫ সালের ২৪শে আগস্ট কতিপয় পুলিশ কর্তৃক ইয়াসমিন ধর্ষন ও হত্যার প্রতিবাদে ২৭ আগস্ট প্রতিবাদী জনতার মিছিলের উপর তৎকালীন প্রশাসনের গুলিতে সিরাজ, সামু, কাদেরসহ ৭ জন শহীদ হন।

এদিকে সোমবার দুপুর ১২টায় দিনাজপুর দশমাইল মোড়ে ‘ইয়াসমীন ট্রাজেডীর ২৩ বছর পূর্তি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইয়াসমিন ধর্ষন ও হত্যার অন্যতম প্রতিবাদকারী নেতা মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি।

ইয়াসমিন ট্রাজেডি স্মরণ পরিষদের আহবায়ক মোঃ মজিদুল ইসলাম মাষ্টারের সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি চিত্ত ঘোষ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সুলতান কামাল উদ্দিন বাচ্চু, বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নুর ইসলাম নুর, আওয়ামী লীগ নেতা শামীম আলম ফিরোজ, রাজেন্দ্র দেবনাথ, মো. হামিদুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম এবং ইউপি চেয়ারম্যান শরিফউদ্দিন মাষ্টার, সঞ্জয় কুমার মিত্র, গোপাল দেব শর্মা, সত্যজিৎ রায়, সাইফুল ইসলাম ও জেলা পরিষদের সদস্য মিরা মাহবুব।

১৯৯৫ সালের ২৪ আগস্ট কিছু বিপথগামী পুলিশ সদস্য ইয়াসমিনকে ধর্ষনের পর শ^াস রোধ করে হত্যা করে। তারই প্রতিবাদে যে আন্দোলন গড়ে উঠেছিল তার চূড়ান্ত রূপ নেয় ২৭ আগস্ট। সেদিন পুলিশের গুলিতে সামু, কাদের, সিরাজসহ ৭জন নিহত হয়। সেই থেকে তাদের স্মরণে ২৭ শে আগস্ট স্মরণ সভা পালিত হয়ে আসছে।

কাহারোল উপজেলার দশমাইলস্থ পূর্ব সাদিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ইয়াসমিন ধর্ষন ও হত্যার প্রতিবাদে সৃষ্ট গণ আন্দোলনে নিহত সামু, সিরাজ, কাদেরসহ ৭ শহীদ স্মরণে’ ৭১ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘সামু-সিরাজ-কাদের’ নামকরণে একটি একাডেমিক ভবন নির্মান করা হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য