বিরামপুর শহরের ২০ পরিবার পানিবন্দিদিনাজপুর সংবাদাতাঃ পানি নিস্কাশনে ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় কয়েকদিনের বৃষ্টির পানিতে প্রথম শ্রেণির বিরামপুর পৌর শহরের ২০টি পরিবার পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

পানিবন্দি এলাকার প্রভাষক সানোয়ার হোসেন, আজমল হোসেন মাষ্টার, মাহবুব হোসেনসহ ভুক্তভুগিরা জানান, বিরামপুর শহরের পূর্বপাড়া মহল্লায় কয়েক বছরে নতুন নতুন বাড়ি তৈরী হয়েছে। কিন্তু এসব পরিবারের লোকজনের চলাচলের জন্য রাস্তা বা পানি নিস্কাশনের ড্রেনেজ ব্যবস্থা তৈরী হয়নি। বরং বিভিন্ন দিক থেকে ৪/৫টি ড্রেনের পানি এসে এ এলাকায় পড়ে।

ফলে সামান্য বৃষ্টিতে এলাকাটি টইটুম্বর হয়ে প্রায় ২০টি পরিবারের লোকজন পানিবন্ধি হয়ে পড়ে। হাঁটু পানি ডিঙ্গিয়ে বয়স্করা কোন রকমে পার হতে পারলেও ময়লাযুক্ত পানি ও কাদায় নাজেহাল হতে হয়।

ঐ ময়লাযুক্ত পানি পার হয়ে মহল্লাবাসি মসজিদে যেতে পারেন না। ওই মহল্লায় শিশুরা জামা-কাপড় ও বই পুস্তক ভিজে যাওয়ার ভয়ে বাড়ি থেকে বের হতে পারেনা।

গতকাল শনিবার সকালে ওই এলাকার ভুক্তভোগীরা বিরামপুর পৌর মেয়র লিয়াকত আলী সরকারের নিকট গিয়ে সমস্যার কথা উপস্থাপন করে। মেয়র বিষয়টি সমাধানের জন্য ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে নির্দেশনা দেন।

এ ব্যাপারে শহরের ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত আলী সাংবাদিকদের জানান, নতুন ড্রেন নির্মান ছাড়া জলাবদ্ধতার স্থায়ী সমাধান হবেনা। তবে তিনি বিকল্প উপায়ে পানি নিস্কাশনের উদ্যোগ নিচ্ছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য