রঙিন চুলওয়ালা মানুষদের উৎসব ‘রেডলাভ’কারো চুল পিঙ্গল, কারও স্ট্রবেরি কারওটা আবার গাজরের রঙের। জন্ম থেকে এমন চুল নিয়ে পৃথিবীতে আসা মানুষদের অন্যরকম উৎসব রেড লাভ। প্রথমবারের মতো উৎসবটি হয়ে গেলো ফ্রান্সের পশ্চিমাঞ্চলে। এএফফি।

শনিবার ‘রেড লাভ’ উৎসবে যোগ দেয় বাদামি, আদা রঙা, পিঙ্গল বর্ণ, স্ট্রবেরী রঙের সাথে লালচে ছোঁয়া নিয়ে সব ধরনের রঙিন চুলের মানুষ। ৩২ বছর বয়সী কৃষক সাইমন বলেন, ‘আমি লাল রঙের চুল নিয়েই জন্মেছি। আমি কৃত্রিমভাবে আমার চুলের রং পরিবর্তন করব না। আমার চারপাশের অন্য সবার মতোই আমিও সুন্দর।’

তিনি ‘তার মতো মানুষের’ সঙ্গে এই উৎসবে যোগ দিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, ‘ছোট বেলায় আমাকে উত্যক্ত করা হতো। আমাকে ‘গাজরের মাথা’ বলে ডাকা হতো। অনেকটা মোটা মানুষকে যেভাবে উত্যক্ত করা হয় তেমন।’

লিয়াম ফিফে তার তিন বন্ধুর সাথে দাঁড়িয়ে আছেন। তারা এটি খাবারের গাড়ি থেকে মানুষের মাঝে খাবার বিলি করার অপেক্ষায় আছেন।
‘রেডহেড’ উৎসবটি বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের লালচুলা মানুষের পরস্পরের সঙ্গে মিলিত হওয়ার সবচেয়ে বড় উৎসব। প্রতি বছর অনুষ্ঠানটি নেদারল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয়। এ বছর হলো ফ্রান্সে।

লিয়াম বলেন, ‘১৫ বছরের আগ পর্যন্ত আমার চুল নিয়ে আমাকে উত্ত্যক্ত করার বিষয়টি আমার কাছে খুবই যন্ত্রণাদায়ক ছিল।’ তার লম্বা লাল দাঁড়ি রয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘এখন কোন লালরঙা শিশু দেখলে আমি তাদের অভয় দেই। আমি চাইনা তারা আমার মতোই নিঃসঙ্গতার যন্ত্রণা পাক।’

চ্যাটিয়াউগিরনের ব্রিটনী শহরে এবারই প্রথম উৎসবটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ ছিল কনসার্ট ও বিয়ের পোশাকে ১৮ রেডহেডের ক্যাটওয়াক। ‘বাদামী হচ্ছে নতুন কাল রঙ’ লিখা টিশার্ট সবচেয়ে বেশি বিক্রিত আইটেমের মধ্যে স্থান করে নিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য