কর্মব্যস্ত ঠাকুরগাওয়ের কামারপল্লীমাসুদ রানা পলক, ঠাকুরগাও: দিন রাত চলছে চাপাতি, ছুরি, দা, বটি ইত্যাদি তৈরির কাজ। বিক্রি হচ্ছে ভালো। ফলে বাড়তি আয়ে কামারদের মুখে হাসি ফুটেছে। জেলায় শতাধিক কামার পরিবার বসবাস করে। পবিত্র ঈদ উল আজহাকে সামনে রেখে ঠাকুরগাও কামারপল্লী কর্মব্যস্ত হয়ে উঠেছে। ঈদ যতই এগিয়ে আসছে তাদের ব্যস্ততা ততই বাড়ছে।

জানা গেছে, জেলার ৫টি উপজেলা সদর, রানীশংকৈল, হরিপুর, পীরগঞ্জ ও বালিয়াডাঙ্গীর বিভিন্ন এলাকায় কামাররা বসবাস করেন। তার মধ্যে মাদারগঞ্জ, শিবগঞ্জ ও রানীশংকৈল কামারপাড়া প্রভৃতি এলাকায় কামারদেরও বাস বেশি। কামাররা সারা বছর ছুরি, বটি, দা, কাটারীসহ বিভিন্ন জিনিস তৈরিও মেরামত করে থাকেন। এদের সারাবছর কমবেশি কাজ হলেও কাজ হয় মূলত ঈদুল আজহার সময় বেশি হয়।

কামাররা লোহা আগুনে গরম করে পিটিয়ে তৈরি করেন দা, ছুরি প্রভৃতি। সারা বছর কামারদের যে কাজ হয় ঈদুল আজহার সময় তার কয়েক গুন বেশি কাজ হয়। একজন কর্মকার সারাদিন কাজ করে ৩/৪ শত টাকা আয় করে। কোরবানির সময় এই আয় বেড়ে যায় হাজার টাকায়। এই সময় তাদের দম ফেলার সময় থাকে না । কামাররা এই সময়টার জন্য সারা বছর অপেক্ষায় থাকেন।

জেলার সদর উপজেলা শিবগঞ্জ বাজারের কামার রা জানান, সারা বছর যে কাজ হয় কোরবানি ইদের সময় সব থেকে বেশি কাজ হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য