Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
09 23 18

রবিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১২ই মুহাররম, ১৪৪০ হিজরী

Home - রংপুর বিভাগ - নাগেশ্বরীতে ভিজিএফ’র চাল উদ্ধার

নাগেশ্বরীতে ভিজিএফ’র চাল উদ্ধার

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার কালিগঞ্জ ইউনিয়নের কালিগঞ্জ বাজারে সাড়ে ৩শ’ বস্তা ভিজিএফ’র চালসহ ৬টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সিলগালা করে দিয়েছেন নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শঙ্কর কুমার বিশ্বাস।

App DinajpurNews Gif

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরেজমিনে কালিগঞ্জ বাজারে চাল ব্যবসায়ীদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভিজিএফ’র চালের বস্তা দেখতে পেয়ে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সিলগালা করে দেয়।

এ ব্যাপারে নাগেশ্বরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শঙ্কর কুমার বিশ্বাস জানান, আমি খবর পেয়ে সরেজমিনে ৬ জন চাল ব্যবসায়ীর গোডাউন ঘরে প্রায় সাড়ে ৩শ’ বস্তা ভিজিএফ’র চাল দেখতে পেয়ে সে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো সিলগালা করে দিয়েছি। যেহেতু সরকারি রিলিফের চাউল বিক্রি যোগ্য নয়, সেহেতু ভিজিএফ’র এসব চাল যাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে পাওয়া গেছে আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে হতদরিদ্র ও দুস্থদের জন্য ২০ কেজি করে চাল বিতরণের জন্য জেলার প্রতিটি ইউনিয়নে চাল বরাদ্দ দেয় সরকার। গত ১০ ও ১১ আগস্ট প্রতিটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সেই চাল সরকারি গোডাউন থেকে উত্তোলন করে ইউনিয়ন পরিষদের গোডাউনে মজুদ রেখে পর্যায়ক্রমে বিতরণ শুরু করে। অনেক ইউনিয়নে এখনও ভিজিএফ’র চাল বিতরণ শেষ হয়নি।

এ দিকে বিতরণের জন্য ২৯শ’ বস্তা (৮৯ মে.টন) চাল উত্তোলন করেন কালিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান। এরমধ্যে গত ১২ আগস্ট থেকে বিতরণ শুরু করলেও ২৫০ বস্তা চাউল এখনও বিতরন করতে পারেননি।

এ ব্যাপারে নাগেশ্বরী উপজেলার কালিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আতিয়ার রহমান জানান, আমি গত ১০ ও ১১ আগস্ট সরকারি গোডাউন থেকে ভিজিএফ’র চাল উত্তোলন করে তা বিতরণ শুরু করেছি। আমার ইউনিয়নে চরাঞ্চল থাকায় এখনও ২৫০ বস্তা চাউল বিতরণ করতে পারিনি।

তবে কালিগঞ্জ বাজারে ব্যবসায়ীদের প্রতিষ্ঠানে ভিজিএফ’র চাউল থাকার বিষয়টি তিনি জানেন না বলে জানান।