চাল কুড়িগ্রামের উলিপুরে ঈদ উল আযহা উপলক্ষ্যে হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত ১’শ বস্তা ভিজিএফ‘র চাল আটকের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে, গত রোববার (১২আগষ্ট) রাতে উপজেলার চৌমহনী বাজারে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

জানা গেছে, দুঃস্থ্যদের জন্য বরাদ্দকৃত ভিজিএফ‘র ১’শ বস্তা চাল চৌমহনী বাজারের চাল ব্যবসায়ী আবদুল মালেকের গোডাউনে মজুদ করার সময় স্থানীয় জনতার সন্দেহ হওয়ায় প্রশাসনকে খবর দেয়। পরে রাত ১১ টার দিকে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম থানা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে আটককৃত চাল জব্দ করে ওই ব্যবসায়ীর জিম্মায় রেখে দেন।

চাল ব্যবসায়ী আবদুল মালেক জানান, ট্রলির মালিক ফরিজ আমাকে ফোন করে গাড়ির সমস্যার কথা বলেন এবং বস্তা গুলো পরে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে আমার গোডাউনে রেখে যায়। সে আমাকে জানান, চালের বস্তা গুলো বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ভিজিএফ এর জন্য বরাদ্দকৃত।

বুড়াবুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আটককৃত চাল তার ইউনিয়নের নয় এ মর্মে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা বরাবর লিখিতভাবে জানালে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম গতকাল সোমবার সকালে বুড়াবুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শন করে উত্তোলনকৃত ভিজিএফ‘র ৬৪ দশমিক ৪’শ ৯০ মেট্রিক টন চাল গোডাউনে মজুদ রয়েছে বলে নিশ্চিত করেন।

বুড়াবুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান একরামুল হক বলেন, একটি কুচক্রীমহল পরিকল্পিতভাবে আমাকে ফাঁসানোর জন্য আমার ইউনিয়নের চাল বলে প্রচার করেছেন।

উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেন, আটককৃত চাল উদ্ধার করে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য