ভারতের উত্তরাঞ্চলে বৃষ্টি ও ভূমিধসে ২০ জনের প্রাণহানিভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য হিমাচল প্রদেশে ভারি বৃষ্টিপাত ও ভূমিধসে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ২০ জন মারা গেছে। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে মঙ্গলবার হিমাচল প্রদেশের সব স্কুল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং প্রধান সড়কগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা সিনহুয়া’র।

রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে কয়েকজন পর্যটকসহ কয়েকশ’ লোক আটকা পড়েছে। আগামী কয়েকদিন বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

এনডিটিভি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, সোলান জেলার কান্ডঘাট মহকুমায় ভূমিধসে একই পরিবারের চার সদস্য প্রাণ হারিয়েছে।

জেলায় বৃষ্টিজনিত দুর্ঘটনায় আটজন মারা গেছে। পারওয়ানুর কাছে কৌশল্যা নদীর পানির স্রোতে একটি ছেলে ভেসে গেছে।

মান্ডি জেলায় ভূমিধসে তিন জন মারা গেছে। চন্ডিগড়-শিমলা, শিমলা-নাহান, চাম্বা-পাঠানকোট ও মান্ডি-পাঠানকোট মহাসড়কগুলোতে কয়েক ঘণ্টা ধরে যান চলাচলে বিঘ্ন দেখা দেয়।

সিনিয়র এক কর্মকর্তা বলেন, ভূমিধসের কারণে ৯২৩টি সড়ক বন্ধ ছিল। এদের মধ্যে ছয়টি জাতীয় মহাসড়ক। তারা যত দ্রুত সম্ভব ওই মহাসড়কগুলো দিয়ে যান চলাচল শুরু করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের কাংড়া জেলার বৈজনাথ শহরে ২৩৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। পালামুরে ২১২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য