তৃতীয় দিনের মতো গজনিতে তালিবান হামলা অব্যাহতটানা তৃতীয় দিনের মতো আফগানিস্তানের গজনিতে হামলা অব্যাহত রেখেছে জঙ্গি গোষ্ঠী তালিবান। শহরটির দখল নেওয়ার উদ্দেশ্যে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তুমুল সংঘর্ষে লিপ্ত জঙ্গি দলটি। খবর বিবিসি’র।

আফগান সেনাবাহিনীর চিফ-অফ-স্টাফ মোহাম্মদ শরীফ ইয়াফতালি বলেন, শহরটি জঙ্গিদের হাতে পড়ার ঝুঁকিতে নেই। কিন্তু গজনি বাসিন্দারা বলছেন, জঙ্গিরা শহরটির বেশিরভাগ অংশ দখল করে নিয়েছে। সরকারি বাহিনী খুব অল্প অংশের নিয়ন্ত্রণে আছে।

উল্লেখ্য, শুক্রবার থেকে গজনি দখলের উদ্দেশ্যে সেখানে হামলা চালানো শুরু করে তালিবান।

শুক্রবার অভিযান শুরুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই অন্তত ১৬ জন ব্যক্তি নিহত হন। আহত হন অনেকে। স্থানীয় গণমাধ্যম ১টিভিতে বলা হয়, নিহতের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে শতাধিক হয়েছে। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে এই বিষয়ে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

গজনি হচ্ছে কাবুল ও কান্দাহারের মধ্যকার যোগাযোগের অন্যতম প্রধান কেন্দ্রবিন্দু। জঙ্গিরা সেখানকার যোগাযোগ টাওয়ার ধ্বংস করে দেওয়ার পর থেকে সেখানে আসলে কি হচ্ছে সে বিষয়ে কোন নিশ্চিত তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না।

মার্কিন সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, তালিবানদের শহর দখলের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। প্রসঙ্গত, তালিবানরা হামলার পর তাদের পিছু হটাতে শহরটিতে বিমান হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্র ও আফগান সেনাবাহিনীর দাবি, শহরটির গুরুত্বপূর্ণ কৌশলগত স্থানগুলো আফগানদের দখলে আছে। কিন্তু শহরের বাসিন্দারা সম্পূর্ণ ভিন্ন তথ্য দিচ্ছেন।

স্থানীয় আইনপ্রণেতা চামান শাহ এহতেমাদি রয়টার্সকে বলেন, কেবলমাত্র গভর্নরের কার্যালয়, পুলিশ সদরদপ্তর ও গোয়েন্দা সংস্থার ভবনটি সরকারী বাহিনীর দখলে আছে। বাকি সবকিছু তালিবানদের নিয়ন্ত্রণে চলে গেছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি’র এক সাংবাদিক বলেন, তালিবানরা মোটেও লুকিয়ে নেই। তারা শহরজুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য