বর্ষায় ভুট্টা যেভাবে রোগ প্রতিরোধ করেবর্ষাকালে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে ভুট্টা বেশ উপকারী ভূমিকা পালন করে। ভুট্টা সিদ্ধ অথবা পুড়িয়ে খাওয়া হয়। এ কারণে প্রতিদিন খেলেও এটা ওজন বাড়ায় না।

ভুট্টাতে ১২৫ থেকে ১৫০ ক্যালরি রয়েছে। এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে যা হজমপদ্ধতি ঠিক রাখতে সাহায্য করে।এমনিতে বর্ষাকালে পেটের নানা ধরনের রোগ হয়। ভুট্টা সেইসব রোগ প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে।

এছাড়া এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বর্ষাজনিত অন্যান্য রোগ প্রতিরোধেও সহায়তা করে।

বৃষ্টির দিনে রাস্তা থেকে ভুট্টা খাওয়া স্বাস্থ্যহানির কারণ ঘটাতে পারে। বাড়িতেই এটা সিদ্ধ করে কিংবা পুড়িয়ে খান। তাহলে যেকোন ধরনের সংক্রমণের ঝুঁকি কমে যাবে।

ভুট্টায় প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি,থায়ামিন ,নিয়াসিন,ফলিক এসিড রয়েছে। এসব উপাদান মস্তিষ্ক সুস্থ রাখে, শরীরের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়। এ কারণে এটি হৃদরোগের জন্যও উপকারী।

প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকায় ভুট্টা কোষ্টকাঠিন্য কমাতে সাহায্য করে। গবেষণায় দেখা গেছে, ভুট্টা শরীরে উপকারী ব্যাকটেরিয়া তৈরিতেও ভুমিকা রাখে।এজন্য যেকোন ধরনের সংক্রমণ সারাতেও এটি বেশ কর্যকরী।

শক্তি জোগানোর প্রধান উৎস কার্বোহাইড্রেট। আর ভুট্টাতে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইেড্রট থাকে। এটি খেলে অনেকক্ষণ পেট ভরা অনুভূত হয়। সেই সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ শরীরে শক্তিও বজায় থাকে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য