অর্থ পাচার আইনে অভিযুক্ত হতে চলেছেন নাজিব রাজাকমালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক অর্থ পাচার আইনে অভিযুক্ত হতে যাচ্ছেন। মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় তহবিল ১এমডিবি কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার দায়ে অর্থ পাচার-বিরোধী আইনের আওতায় এই অভিযোগ গঠন করা হবে তার বিরুদ্ধে। বুধবার একথা জানিয়েছে দেশটির সরকার। খবর আল জাজিরার।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে উদ্ধৃত করে খবরে বলা হয়, ৬৫ বছর বয়সী নাজিবকে মঙ্গলবার তলব করে মালয়েশিয়ার দুর্নীতিবিরোধী কমিশন (এমএসিসি)। সেখানে তাকে প্রায় ৪৫ মিনিট ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

কমিশন কার্যালয় থেকে নাজিব বিদায় নেওয়ার কিছুক্ষণ পরই সংস্থাটি একটি বিবৃতি প্রকাশ করে। তাতে বলা হয়, নাজিবের বিরুদ্ধে অর্থ পাচার-বিরোধী আইনের অধীনে অভিযোগ গঠন করা হবে।

বিবৃতিতে বলা হয়, অভিযোগগুলি এসআরসি ইন্টারন্যাশনাল মামলার সঙ্গে সম্পর্কিত। উল্লেখ্য, এসআরসি ইন্টারন্যাশনাল হচ্ছে ওয়ানএমডিবি’র সাবেক সম্পূরক প্রতিষ্ঠান। অভিযোগ রয়েছে, এসআরসি ইন্টারন্যাশনালের তহবিল নাজিবের ব্যক্তিগত হিসাবে স্থানান্তর করা হয়েছে।

গত মাসে নাজিবের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার ও ওয়ানএমডিবি তহবিল থেকে এক কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ নিজের ব্যক্তিগত হিসাবে হস্তান্তর করায় বিশ্বাসভঙ্গের তিনটি অভিযোগ আনা হয়। ২০১৪ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে এই অর্থ হস্তান্তর করেন তিনি।

নাজিব অবশ্য তার গ্রেফতারের একদিন পর সকল অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এবং জামিনে মুক্তিও পেয়েছেন।

প্রসঙ্গত, মোট ছয়টি দেশে তদন্তাধীন রয়েছে ওয়ানএমডিবি তহবিল প্রকল্প। এর মধ্যে, যুক্তরাষ্ট্র, সুইজারল্যান্ড ও সিঙ্গাপুর রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য