কানাডায় সব ধরনের চিকিৎসা কার্যক্রম বন্ধ করেছে সৌদি‘অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের’ অভিযোগ তুলে কানাডার বিরুদ্ধে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার পর এবার দেশটিতে সব ধরনের চিকিৎসা কার্যক্রম বন্ধ করল সৌদি আরব।

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় নিযুক্ত সৌদির স্বাস্থ্য অ্যাটাশে ডাঃ ফাহদ বিন ইব্রাহিম আল তামিমির উদ্ধৃতি দিয়ে বুধবার এ সংবাদ দিয়েছে সৌদি বার্তা সংস্থা, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

দেশটির কর্তৃপক্ষ কানাডায় থাকা সৌদির সব রোগীকে কানাডার বাইরে অন্যান্য হাসপাতালে সরিয়ে নেওয়ার কাজ সমন্বয় করছে বলে জানিয়েছেন তামিমি।

আটক নাগরিক অধিকার ও নারী অধিকার আন্দোলনকারীদের মুক্তি দিতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানানোর পর কানাডার ওপর ক্ষুব্ধ হয় সৌদি আরব।

অধিকার কর্মীদের আটককে ‘আইনানুগ’ অ্যাখ্যা দিয়ে কানাডার দেওয়া বিবৃতিকে ‘সৌদি আরবের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নির্লজ্জ হস্তক্ষেপ’ হিসেবেও অভিহিত করে রিয়াদ।

এর জেরে সোমবার কানাডার রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কারের পাশাপাশি কানাডা থেকে নিজ রাষ্ট্রদূতকে প্রত্যাহার করে নেয় দেশটি।

এর পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যে সব ধরনের নতুন বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বন্ধ, কানাডায় পড়তে যাওয়া সৌদি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি বাতিল এবং যেসব সৌদি শিক্ষার্থী কানাডায় অবস্থান করছে তাদের ফিরিয়ে আনারও ঘোষণা দেয় সৌদি কর্তৃপক্ষ।

এছাড়া কানাডার টরন্টোতে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনাও স্থগিত করেছে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় এয়ারলাইন্স। এবার কানাডায় সবধরনের চিকিৎসা কার্যক্রমও বন্ধ করল দেশটি।

রাষ্ট্রদূত বহিষ্কার, নতুন বাণিজ্য বন্ধসহ রিয়াদের বিভিন্ন পদক্ষেপের সত্বেও ‘মানবাধিকারের পক্ষে তাদের সমর্থন অব্যাহত থাকবে’ বলে জানিয়েছে কানাডা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য