মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ২০১৫ সালের পারমাণবিক চুক্তি থেকে নিজেকে প্রত্যাহারের ফলে ইরানের বিরুদ্ধে যে নিষেধাজ্ঞা ছিল তা পুরোপুরি পুনর্বহাল করেছে যুক্তরাষ্ট্র। আর মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) সকাল থেকে ইরানের গাড়ি, স্বর্ণ ও অন্যান্য ধাতু খাতে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল হয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

ট্রাম্প দাবি করেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে এসব নিষেধাজ্ঞার কারণে তেহরান নতুন চুক্তির জন্য রাজি হবে এবং অস্থিতিশীলতা তৈরির কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকবে। ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের ঘটনাকে মনোজাগতি যুদ্ধ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

ট্রাম্প হুঁশিয়ারি জানিয়ে বলেছেন, যেসব ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান নিষেধাজ্ঞা অমান্য করবে তাদের বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পড়তে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপে বড় ধরনের উদ্বেগ জানিয়েছে ২০১৫ সালের চুক্তিবদ্ধ দেশ যুক্তরাজ্য, জার্মানি ও ফ্রান্স।

বিবিসি জানিয়েছে, ইরানের বন্দর, জ্বালানি, নৌ পরিবহন ও নির্মাণ খাত, ইরানের জ্বালানি ও তেল বিষয়ক লেনদেন এবং ইরানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে বিদেশি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের লেনদেনও এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছে।

এক বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, অনেক ইতোমধ্যেই কোম্পানি ইরানের বাজার ত্যাগ করছে জেনে আমি আনন্দিত। অনেক দেশই ইঙ্গিত দিয়েছে তারা ইরানের অপরিশোধিত তেল আমদানি কমিয়ে দেবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য