সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ‘না’সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে দূরে থাকবেন অভিনেত্রী মিলা কুনিস। নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে কোনো কাজের প্রচার এড়াতেই এমন সিদ্ধান্ত তাঁর। তাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কখনোই ‘সাইন আপ’ করবেন না যুক্তরাষ্ট্রের এই অভিনেত্রী।

এমনিতেই নিজের ব্যক্তিগত বিষয় কাউকে জানাতে চান না মিলা। তা ছাড়া যেকোনো প্রকল্পের সঙ্গে চুক্তি হলেই প্রকল্পটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারেরও চুক্তি করতে হবে। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলোর এমন সিদ্ধান্তেই বিরক্ত মিলা কুনিস।

নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্ট থেকে এই প্রচারকাজ করতে ইচ্ছা নেই তাঁর। তাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অ্যাকাউন্ট না খোলার কথা জানালেন তিনি। কারণ, অ্যাকাউন্ট না থাকলে প্রচারেরও ঝামেলা নেই।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কেবল একটি পেজ আছে মিলা কুনিসের। তাও খুলেছেন অনেক পরে। মিলা কুনিস বলেন, ‘এখন সত্য হলো, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারটাও আপনার চুক্তির অংশ। সুতরাং আপনি যদি অভিনেতা হন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে কাজসংক্রান্ত বেশি বেশি পোস্ট করতে হবে। এ কারণেই আমি এই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে থাকতে চাই না। তবে এটা বিতর্কেরও কিছু নয়।’

যদিও ভক্তরা মিলাকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পাবেন না। কিন্তু তাঁর মানে এই নয় যে, তিনি অন্য কারও অ্যাকাউন্ট দেখতেও পারবেন না। তাঁর স্বামী অ্যাস্টন কুচার আছেন না! তাঁর অ্যাকাউন্ট দিয়েই চোখ রাখবেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

এই সময়ে ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম দিয়েই খবরের শিরোনামে আসছেন তারকারা। সেখানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকেই দূরে মিলা। ভক্তরা একটু দ্বিধায় পড়তে পারেন। তাঁদের জন্য মিলার ভাষ্য, ‘আমাকে কেউ ভুল বুঝবেন না। এটা একটি ব্যক্তিগত দৃষ্টিভঙ্গি মাত্র।’ সূত্র: এসশোবিজ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য