কাশ্মিরে বন্দুকযুদ্ধে ৫ জঙ্গি নিহতভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে পাঁচ গেরিলা নিহত হয়েছে। দক্ষিণ কাশ্মিরের সোপিয়ান জেলার কিলোরা গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে।

অন্যদিকে, নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানে পাথর নিক্ষেপ করে বাধা দেয়াকে কেন্দ্র করে আজ প্রতিবাদী জনতা ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০ তরুণ আহত হয়েছেন। আহত তরুণদের স্থানীয় জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও এদের মধ্যে ৫ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শ্রীনগরে পাঠানো হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট এলাকায় গেরিলাদের উপস্থিতির কথা জানতে পেরে গতকাল (শুক্রবার) রাত থেকে নিরাপত্তা বাহিনী ও পুলিশে স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ যৌথভাবে সেখানে তল্লাশি অভিযান চালায়। এসময় নিরাপত্তা বাহিনী ও গেরিলাদের মধ্য ‘বন্দুকযুদ্ধ’ শুরু হয়।

গতকাল রাতে এক গেরিলার লাশ উদ্ধার হলেও আজ (শনিবার) সকালে আরো চার গেরিলার লাশ উদ্ধার হওয়ায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে পাঁচ জনে পৌঁছেছে।

ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে কর্তৃপক্ষ সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে দক্ষিণ কাশ্মিরের সোপিয়ান জেলায় মোবাইল ইন্টারনেট পরিসেবা স্থগিত করেছেন।

এদিকে, উত্তর কাশ্মিরের কুপওয়াড়ার লোলাব এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে গত (বৃহস্পতিবার) দুই গেরিলা নিহত হওয়ার প্রতিবাদে গতকাল শুক্রবার ও আজ (শনিবার) সেখানে সর্বাত্মক বনধ পালিত হয়েছে। বনধকে কেন্দ্র করে সেখানকার দোকানপাট, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। সড়কে যানবাহন চলাচলও সম্পূর্ণ বন্ধ। ত্রেহগাম, কুপওয়াড়া, লোলাব ও সন্নিহিত এলাকায় বনধ পালিত হয়েছে। কর্তৃপক্ষ সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে কুপওয়াড়া শহরে কারফিউয়ের মতো নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য