রংপুর রেঞ্জের নবাগত ডিআইজির সাথে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়বাংলাদেশ পুলিশের রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্রাচার্য্য বলেছেন, রংপুর রেঞ্জের প্রতিটি পুলিশ স্টেশনে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে চাই।

কারণ মানুষের বিচার প্রার্থনার প্রথম জায়গাই হলো থানা বা পুলিশ স্টেশন। এজন্য থানা এবং পুলিশ স্টেশনে কোন ভূক্তভোগি-বিচারপ্রার্থী যখন যাবে, তার সাথে ন্যয়সঙ্গত আচরণ করা পুলিশের দায়িত্ব।

তার সমস্যা শুনে, মামলা নেয়ার প্রয়োজন হলে সাথে সাথেই তা নিতে বাধ্য পুলিশ। যদি কোন পুলিশ সদস্য কিংবা কোন থানা সেটা না করেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বুধবার দুপুরে রংপুর পুলিশ লাইন অডিটোরিয়ামে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি একথা বলেন।

নবাগত এই ডিআইজি বলেন, সমাজে এখনও একটি চক্র প্রতিক্রিয়াশীল। তারা মানুষকে উস্কে দিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি করে সমাজে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করতে চায়। যারা জনগনের সম্পদ ও জীবনের নিরাপত্বার বিঘœ ঘটাবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোরতর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। এ সময় তিনি মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

মতবিনিয়ম সভায় ডিআইজি’র সঙ্গে ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি আবদুল মজিদ, রংপুর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান পিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সার্বিক আবু মারুফ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) ফজলে এলাহী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ সার্কেল) সাইফুর রহমান সাইফ প্রমুখ।

ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য বলেন, নারী, শিশু, সংখ্যালঘু এবং সমাজের প্রান্তিক জনগোষ্ঠির ব্যাপারে বিশেষ মানবিক আচরণ করবে আমার রংপুর রেঞ্জের পুলিশ। যাতে তাদের অধিকার, নিরাপত্বা নিশ্চিত হয়।

তিনি আরো বলেন, পুলিশের কাজ অপরাধের বিষয়ে খোঁজখবর নিয়ে বিচারের মুখোমুখি করা। আর সাংবাদিকদের কাজ অপরাধের খোঁজখবর নিয়ে তার প্রকাশ করে দেয়া। সাংবাদিক-পুলিশ পারস্পারিক সেতুবন্ধনের মাধ্যমে কাজ করলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে থাকবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য