দিনাজপুরে দুদকের দুর্নীতি প্রতিরোধে গণশুনানীদিনাজপুর সংবাদাতাঃ দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার এএফএম আমিনুল ইসলাম বলেছেন, শুধু দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে দুর্নীতি দমন প্রতিরোধ সম্ভব নয়। দুর্নীীত প্রতিরোধে জনগণকে স্বোচ্চার হতে হবে। দুর্নীতি প্রতিরোধ করতে পারলে দেশের উন্নয়ন টেকসই হবে এবং নাগরিকরা আরো উন্নত সেবা ভোগ করতে পারবে। কারণ দেশের সার্বিক উন্নয়নের প্রধান বাধা দুর্নীতি।

তিনি মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) দিনাজপুর শিশু একাডেমি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় দুর্নীতি দমন কমিশন ও জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির আয়োজনে দুর্নীতি প্রতিরোধে গণশুনানী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, দেশকে সোনার বাংলা গড়তে এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পুরণ করতে হলে দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে। স্কুলেরছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে দুর্নীতি প্রতিরোধের জন্য আমরা ২৩ হাজার স্কুলে সততা সংঘ সৃষ্টি করেছি। আমাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে। তবে দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়া সম্ভব হবে।

দিনাজপুর জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ হাবিবুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দুর্নীতি দমন কমিশন (প্রতিরোধ) মো. মনিুরুজ্জামান, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক ড. আবু নঈম মুহাম্মদ আবদুছ ছবুর, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তাহের মাসুদ রানা।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম ও শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দুর্নীতি দমন কমিশন, সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. বেনজীর আহম্মদ।

দ্বিতীয় পর্বে গণশুনানী অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. মাহাবুবুর রহমান। গণশুনানীতে প্রায় ৭০টি অভিযোগ আসে। তার মধ্যে ৪৮টি শুনানী হয়। “জনতাই শক্তি, রুখবে দুর্নীতি”এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে দিনাজপুরে দুদকের আয়োজনে গণশুনানী অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য