বড়পুকুরিয়ার কয়লা গায়েব বিষয়ে বিদ্যুতের ঘাটতি হবে নাঃ বিদ্যুৎ ও খনিজ সম্পদ সচিবদিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি ও তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিদর্শন করেছেন, পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যানসহ বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ মন্ত্রনালয়ের চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল।

পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে আজ শুক্রবার দুপুরে তারা গণমাধ্যমকর্মীদেও জানান,স্বশরীরে তারা কয়লা গায়েবের বিষয়টি দেখতে এসেছেন। তবে দেশে বিদ্যুতের কোন ঘাটতি নেই সিরাজগঞ্জ থেকে চাহিদা মেটাতে বিদ্যুৎ উৎপাদনে বাড়তি ব্যাবস্থা নেয়া হয়েছে বলে তাজার জানান।

সংশিষ্টএকটি সূত্র জানায় বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর ঈদ-উল-আযহার ছুটি বাতিল করেছে প্রতিনিধি দল। সেই সাথে এক মাসের মধ্যে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা উত্তোলন ও তাপবিদুৎ কেন্দ্রে বিকল্প পদ্ধতিতে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ব্যবস্থ্যা নেয়ারও কথা জানিয়েছেন।

প্রতিনিধি দলে ছিলেন পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান আবুল মনসুর মো.ফয়জুল্লাহ, পিডিবি’র চেয়াম্যান খালিদ মাহমুদ, বিদ্যুৎ ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব আহমেদ কায়কোয়াজ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব আবু হেনা মো.রহমাতুল মুনিম।

উল্লেখ্য, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে ১ লাখ ৪৪ হাজার মেট্রিক টন কয়লা উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনার বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানী লিমিটেডের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মোহাম্মদ আনিছুর রহমান বাদী হয়ে গত ২৪ জুলাই মঙ্গলবার রাতে পার্বতীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এই মামলায় খনির সদ্য অপসারিত ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী হাবিবউদ্দীন আহম্মদ, কোম্পনী সচিব আবুল কাশেম প্রধানিয়াসহ ১৯ কর্মকর্তাকে আসামী করা হয়। অপরদিকে মামলার নথী দুর্নীতি দমন কমিশন দিনাজপুর আঞ্চলিক শাখা থেকে কেন্দ্রীয় দুদকের কর্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য